উন্নত দেশগুলো ইতোমধ্যে ৫-জি প্রযুক্তি ব্যবহার শুরু করেছে, বাংলাদেশও বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এ আপগ্রেডেড নেটওয়ার্কের সব সুবিধা পাওয়ার পরিকল্পনা করছে। নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে ডিজিটাল রূপান্তরে আসবে নতুন গতি। দেশের ৫-জি নেটওয়ার্কের এ যাত্রায় ভূমিকা রাখার লক্ষ্যে বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি স্মার্টফোনপ্রেমীদের জন্য নিয়ে এসেছে বাংলাদেশের সবচেয়ে সাশ্রয়ী ৫-জি স্মার্টফোন ‘রিয়েলমি ৮ ৫-জি’।

রিয়েলমি ৮ ৫-জি এবং ইউনিভার্সেল পিকচার্সের ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস-৯’ এর কোলাবরেশন থাকায়, এ স্মার্টফোনটি ডিজাইন করা হয়েছে জনপ্রিয় ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে। স্মার্টফোনটি সম্পর্কে বিস্তারতি জানতে ক্লিক করুন https://cutt.ly/Buy_realme8_5G

৫-জি প্রসেসর, সুবিশাল ব্যাটারি আর ৫-জি পাওয়ার সেভিংয়ের সঙ্গে হবে নতুন অভিজ্ঞতা

রিয়েলমি ৮ ৫-জি-তে রয়েছে ডাইমেনসিটি ৭০০ ৫জি প্রসেসর, যা গতানুগতিক প্রসেসরের চেয়ে ২৮ শতাংশ বেশি পাওয়ার এফিশিয়েন্ট। এই প্রসেসর ৫-জি ডুয়াল সিম ডুয়াল স্ট্যান্ডবাই এবং স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের নিরবচ্ছিন্ন ৫-জি অভিজ্ঞতা প্রদানে মূলধারার ৫-জি ফ্রিকোয়েন্সি ব্যান্ড সমর্থন করে। এ শক্তিশালী প্রসেসরের সঙ্গে ব্যবহারকারীরা অত্যন্ত দ্রুত গতির ইন্টারনেট উপভোগ করতে পারবেন। প্রতি ক্ষেত্রেই ব্যবহারকারীরা আপগ্রেডেড বোধ করবেন। কম ল্যাটেন্সির সঙ্গে মাত্র এক মিলি সেকেন্ডে ব্রাউজিং, গেমিং বা ভিডিও স্ট্রিমিং করা যাবে অনায়াসে। অর্থাৎ কোনো বাধা ছাড়াই স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা যেকোনো ধরনের বিনোদন মুহূর্তের মধ্যে উপভোগ করতে পারবেন। ফোনটির পাওয়ার এফিশিয়েন্সিও চমকপ্রদ।

গ্রাহকদের অভিজ্ঞতাকে আরও এক ধাপ বাড়াতে রিয়েলমি ৮ ৫-জিতে রয়েছে পাঁচ হাজার অ্যাম্পেয়ারের সুবিশাল ব্যাটারি। ১৮ ওয়াট টাইপ-সি কুইক চার্জের সঙ্গে এ ব্যাটারি অত্যন্ত কম সময়ে সম্পূর্ণ চার্জ হয়ে যাবে। তাই ব্যবহারকারীরা চার্জ শেষ হওয়ার কোনো চিন্তা ছাড়াই সীমাহীন বিনোদন উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়া ফোনটি স্মার্ট ৫-জি পাওয়ার সেভিং সাপোর্ট করে। রিয়েলমি ৮ ৫-জিতে স্মার্ট ৫-জি প্রযুক্তি থাকায় এটি বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে আশপাশের সিগন্যাল অনুধাবন করতে পারে এবং কম সময়ে ৪-জি ও ৫-জির মধ্যে পরিবর্তিত হতে পারে। এটি বাজারের অন্য ফোনের চেয়ে শক্তির ব্যবহার ৩০ শতাংশ কমাতে সাহায্য করবে। অন্যান্য আকর্ষণীয় ফিচার, যেমন: সিপিইউ টিউনিং, ব্যাকলাইট অ্যাডজাস্টমেন্ট, স্লিপ স্ট্যান্ডবাই অপটিমাইজেশন, অ্যাপ কুইক ফ্রিজ এবং স্ক্রিন ব্যাটারি অপটিমাইজেশন আরও ভালো ব্যাটারি লাইফ দেবে। এ চিপসেট ও ব্যাটারির সমন্বয় এক কথায় অসাধারণ।



৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেটের সঙ্গে হাইপার স্লিম বডি ও নজরকাড়া স্পিড লাইট ডিজাইন অত্যন্ত আকর্ষণীয়

ডিজাইন ও স্ক্রিনের প্রশ্নে বলা যায়, রিয়েলমি ৮ ৫-জি সবদিক থেকেই চমৎকার একটি ফোন। এর হাইপার স্লিম বডি ও আকর্ষণীয় ডিজাইনের জন্য এ ফোন হাতে নিলে ভিড়ের মাঝে আপনি নিশ্চিতভাবে সবার নজর কাড়বেন। ৮.৫ মিলিমিটার হাইপার স্লিম বডি ও ১৮৫ গ্রাম ওজনের রিয়েলমি ৮ ৫-জি দেশের বাজারে সবচেয়ে হালকা ৫-জি স্মার্টফোন। ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেটের সঙ্গে ৬.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস স্মুথ ডিসপ্লেযুক্ত রিয়েলমি ৮ ৫-জি নিরবচ্ছিন্ন ও ঝামেলাহীন ভিজ্যুয়াল অভিজ্ঞতা দিতে প্রতি সেকেন্ডে ৯০ ফ্রেম তৈরিতে সক্ষম। স্ক্রিনে সোয়াপ করলে প্রতিবার আপনি অত্যন্ত মসৃণ অভিজ্ঞতা পাবেন এবং প্রতিবার ট্যাপ হবে আরও বেশি সন্তোষজনক। এ বাজেটের মধ্যে ৫-জি ফোন হিসেবে রিয়েলমির এ নান্দনিক ডিভাইসটি নিঃসন্দেহে অসাধারণ।

এছাড়া ফোনটির ব্যাক কাভার ইউনিভার্সেল পিকচার্সের ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ৯ দ্বারা অনুপ্রাণিত। এই সিনেমার গতিময় হেডলাইট থেকে ধারণা নিয়ে তা ফোনের পেছনে ব্যবহার করে ডায়নামিক স্পিড লাইট ডিজাইন তৈরি করা হয়েছে। ফোনটি শেক করা হলে, এটি এক ধরনের আলোর বিচ্ছুরণের মতো পরিবর্তিত হয়, যা গ্লসি ইফেক্ট দেয়। এটি ব্যবহারকারীর পাশাপাশি যে দেখে তার কাছেও আকর্ষণীয় লাগে।

৮ জিবি র‌্যাম, সঙ্গে ৫ জিবি ডায়নামিক র‌্যাম, ১ টেরাবাইট পর্যন্ত স্টোরেজ

রিয়েলমি ৮ ৫-জিতে ব্যবহার করা হয়েছে ডায়নামিক র‌্যাম এক্সাপানশন টেকনোলজি। এ কারণেই আপনি রিয়েলমি ৮ ৫-জির ইন্টারনাল মেমরিকে ভার্চ্যুয়াল র‌্যামে রূপান্তরিত করতে পারবেন। তাইত রিয়েলমি ৮ ৫-জিতে ৮ জিবি র‌্যামের পাশাপাশি আপনি পাচ্ছেন আরও ৫ জিবি পর্যন্ত ডায়নামিক র‌্যাম। অসাধারণ এ ফিচারের কারণে রিয়েলমি ৮ ৫-জির পারফরমেন্স হবে খুবই স্মুথ। শুধু তাই নয়, রিয়েলমি ৮ ৫-জিতে ১২৮ জিবি ইন্টারন্যাল স্টোরেজের পাশাপাশি থাকবে ডুয়াল সিম স্লট এবং ১ টেরাবাইট পর্যন্ত এক্সটারনাল মেমরি এক্সটেন্ড করার সুবিধা। কাজেই ১ টেরাবাইট পর্যন্ত মেমরি এক্সটেন্ড করে আপনি রিয়েলমি ৮ ৫-জিতে স্টোর করতে পারবেন ২,৬২,০০০+ ছবি কিংবা ২০৯,০০০+ গান কিংবা ৪,১৯০+ টিভি সিরিজ।


৪৮ মেগাপিক্সেলের নাইটস্কেপ ক্যামেরা ও ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা

অত্যাধুনিক ক্যামেরা ছাড়া আধুনিক জীবন চিন্তাই করা যায় না। মানুষের এ চাহিদা পূরণে রিয়েলমি ৮ ৫-জিতে রয়েছে ৪৮ মেগা পিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ, যাতে আছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের হাই-ডেফিনিশনের প্রাইমারি ক্যামেরা, বি অ্যান্ড ডব্লিউ পোর্ট্রেট লেন্স ও ৪ সেমি ম্যাক্রো লেন্স। ৫-জি নেটওয়ার্কের দ্বৈত সম্ভাবনা ও এ ক্যামেরা সেটআপের সঙ্গে ব্যবহারকারীরা অসাধারণ ছবি তুলতে পারবেন। পাশাপাশি এআই বিউটি ও পোর্ট্রেট মোডের সঙ্গে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা ঝকঝকে সেলফি তোলার জন্য যথেষ্ট।

এর সঙ্গে রিয়েলমি ইউআই ২.০ ও ফাস্ট সাইড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারের মতো ফিচার ব্যবহারকারীকে দেবে উন্নত অভিজ্ঞতা। এ ডিভাইসটি ৮জিবি র‌্যাম ও ৫ জিবি ডায়নামিক র‌্যামে পাওয়া যাচ্ছে, যার স্টোরেজের ধারণক্ষমতা ১২৮ জিবি, সঙ্গে ১ টিবি পর্যন্ত মেমরি এক্সটেনশনের সুবিধাও থাকছে। নিঃসন্দেহে এটি বর্তমানে দেশীয় বাজারের সবচেয়ে সাশ্রয়ী ৫-জি ফোন। এছাড়া এতে রয়েছে আকর্ষণীয় সব ফিচার ও স্পেসিফিকেশন, যা ব্যবহারকারীদের ৫-জি নেটওয়ার্কের সঙ্গে সম্পূর্ণ নতুন এক অভিজ্ঞতা প্রদান করবে।

উল্লেখ্য আগামী তিন বছরের মধ্যে তরুণ ব্যবহারকারীদের কাছে ১০ কোটি ফাইভজি ফোন সরবরাহের লক্ষ্যে তরুণদের পছন্দের ব্র্যান্ড রিয়েলমি ফাইভজি পণ্যের এক বিস্তৃত পোর্টফলিও তৈরিতে কাজ করছে। রিয়েলমি তাদের উন্নত ‘১+৫+টি’ কৌশলের সঙ্গে এআইওটি ২.০ বিকাশের পর্যায়ে প্রবেশ করেছে। এর ফলে সাশ্রয়ী মূল্যের ফাইভজি স্মার্টফোন ছাড়াও রিয়েলমি আরও অনেক এআইওটি পণ্য তরুণ ক্রেতাদের জন্য বাজারে নিয়ে আসবে।

দুর্দান্ত পারফরমেন্সের রিয়েলমি ৮ ৫-জি পাওয়া যাচ্ছে, সুপারসনিক ব্লু এবং সুপারসনিক ব্ল্যাক এ দুটি কালারে। আগ্রহীরা শুধু ইভ্যালিতে ১০ জুলাই রাত ১০:১০ মিনিট থেকে এ স্মার্টফোনটি কিনতে পারবেন ১৯ হাজার ৯৯০ টাকার অবিশ্বাস্য মূল্যে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নিশ্চিত ডেলিভারি গ্যারান্টিসহ স্মার্টফোনটি কিনতে ভিজিট করুন  https://cutt.ly/Buy_realme8_5G