এবার আন্তর্জাতিক ফুটবলে রেকর্ড বইয়ের একটি পাতা থেকে সের্হিও রামোসের নাম মুছে দিলেন নতুন নতুন রেকর্ড গড়ার কারিগর ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ঘরের মাঠ এস্তাদিও আলগার্ভেতে বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ কাতারের সঙ্গে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলেছে পর্তুগাল। ৩–০ গোলে জেতা সেই ম্যাচে শুরুর একাদশে থাকলেও প্রথমার্ধ শেষে রোনালদোকে মাঠ থেকে তুলে নেন পর্তুগাল কোচ ফার্নান্দো সান্তোস। তবে ম্যাচটি খেলতে নেমেই আন্তর্জাতিক ফুটবলে ইউরোপিয়ান একটি রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন রোনালদো।

কাতারের সঙ্গে প্রীতি ম্যাচটি ছিল রোনালদোর ক্যারিয়ারে পর্তুগালের হয়ে ১৮১তম ম্যাচ। ইউরোপের জাতীয় দলগুলোর কোনো খেলোয়াড় এর চেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেননি। ইউরোপের দলগুলোর মধ্যে জাতীয় দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডটি এতদিন ছিল স্পেনের ডিফেন্ডার সের্হিও রামোসের। স্পেনের হয়ে ১৮০ ম্যাচ খেলেছেন এ মৌসুমেই রিয়াল মাদ্রিদ থেকে পিএসজিতে নাম লেখানো তারকা এ ডিফেন্ডার।

রেকর্ড গড়ার উপলক্ষটা গোল করে স্মরণীয় করে রেখেছেন রোনালদো। দলের ৩–০ গোলের জয়ে ৩৭ মিনিটে প্রথম গোলটিই করেছেন পর্তুগালের অধিনায়ক। আন্তর্জাতিক ফুটবলে নিজের সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটা তিনি আরেকটু চওড়া করে নিলেন এই গোল দিয়ে। পর্তুগালের জার্সিতে এখন তার গোলসংখ্যা ১১২টি।

২০২২ কাতার বিশ্বকাপের জন্য ইউরোপ অঞ্চলের বাছাইপর্বে ‘এ’ গ্রুপে দ্বিতীয় স্থানে আছে পর্তুগাল। ৫ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট তাদের। ১৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা সার্বিয়া অবশ্য একটি ম্যাচ বেশি খেলেছে।