শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা দেওয়া শুরু হবে আগামী ১২ অক্টোবর থেকে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. ইশফাকুল হোসেন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, আগামী ১২ অক্টোবর (মঙ্গলবার) সকাল ১০টা থেকে এই টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু হবে। যারা করোনা ভ্যাক্সিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করে এখনও টিকা নিতে পারেননি তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে করোনার টিকা প্রদান করা হবে। 

আগামী মঙ্গলবার শাবিপ্রবি মেডিকেল সেন্টারে সকাল ১০টা থেকে টিকা কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে। এদিন ‘আগে আসলে আগে পাবেন’ এই ভিত্তিতে স্নাতকোত্তর এবং স্নাতক শেষ বর্ষের শিক্ষার্থীরা টিকা নিতে পারবেন। 

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, প্রথম দিন ২০০ জন শিক্ষার্থীকে টিকা প্রদান করা হবে। টিকা নিতে আসা শিক্ষার্থীদের টিকার রেজিষ্ট্রেশন কার্ডের মূলকপি এবং ফটোকপির সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র সঙ্গে আনতে হবে।

শাবির সর্বশেষ ১৬৭তম একাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২৫ অক্টোবর থেকে শাবির পাঁচটি আবাসিক হল খুলে দেওয়া হবে। সেদিন শুধু স্নাতকোত্তরে অধ্যায়নরত আবাসিক শিক্ষার্থীরা এবং এরপরে অন্যান্য আবাসিক শিক্ষার্থীরা নূন্যতম ১টি নেওয়ার ডকুমেন্ট দেখিয়ে হলে উঠতে পারবে বলে জানা যায়। 

ক্যাম্পাস ও আবাসিক হল খোলা এবং সশরীরে ক্লাস শুরুর পরে শিক্ষার্থীরা যেন স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে না পড়ে; জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষার প্রতি জোর দিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। 

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ সমকালকে বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং তাদের শতভাগ স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং সামনে হল খোলা হবে ও ক্লাস শুরু হবে তখন যেন কোনো শিক্ষার্থী ঝুঁকিতে না থাকে তার জন্য এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’