বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগতির বিদ্যুৎচালিত উড়োজাহাজ নির্মাণ করার দাবি করেছে যুক্তরাজ্যের উড়োজাহাজ ইঞ্জিন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান রোলস রয়েস। সম্প্রতি এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, উড়োজাহাজটি ঘণ্টায় ৩৮৭ দশমিক ৪ মাইল (৬২৩ কিলোমিটার) গতিবেগে উড়ার রেকর্ড গড়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে রোলস রয়েস। এছাড়া বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘স্পিরিট অব ইনোভেশন’ নামের উড়োজাহাজটি এ পর্যন্ত তিনটি বিশ্বরেকর্ড গড়েছে।

রোলস রয়েস জানিয়েছে, গত ১৬ নভেম্বর ঘণ্টায় ৩৪৫ দশমিক ৪ মাইল গতিতে ১ দশমিক ৮৬ মাইল দূরত্বে যাওয়ার রেকর্ড গড়েছে উড়োজাহাজটি। এছাড়া তিন হাজার মিটার উচ্চতায় যেতে এটি সময় নিয়েছে মাত্র ২০২ সেকেন্ড, যেটি এর আগের রেকর্ডের চেয়ে এক মিনিট কম।

প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, উড়োজাহাজটি যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সামরিক উড়োজাহাজ পরীক্ষণ কেন্দ্রে ঘণ্টায় ৩০০ মাইল গতিতে ৯ দশমিক ৩২ মাইল পথ পাড়ি দিয়েছে, যেটি আরেকটি নতুন রেকর্ড তৈরি করেছে।

বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগতির বিদ্যুৎচালিত উড়োজাহাজ ‘স্পিরিট অব ইনোভেশন’, ছবি: সিএনএন

এসব তথ্য ও উপাত্ত যাচাই-বাছাইয়ের জন্য বৈশ্বিক উড্ডয়ন নিয়ন্ত্রক সংস্থা এফআইএর কাছে জমা দেওয়া হয়েছে।

রোলস রয়েস আরও দাবি করেছে, এই উড়োজাহাজের জন্য ব্যবহৃত প্রপালশান ব্যাটারি প্যাক এ যাবত তৈরি হওয়া ব্যাটারির মধ্যে সবচেয়ে বেশি ‘পাওয়ার ডেনসিটি’ সম্পন্ন। অর্থাৎ প্রতি মিনিটে বিদ্যুৎ প্রবাহের দিক দিয়ে এটি সবচেয়ে দ্রুতগতির।

রোলস রয়েসের পরীক্ষামূলক বৈমানিক এবং উড্ডয়ন কার্যক্রমের পরিচালক ফিল ও'ডেল নিজেই সর্বোচ্চ গতিবেগ অর্জনকারী ফ্লাইটের দায়িত্বে ছিলেন। তিনি বলেন, এটি আমার ক্যারিয়ারের হাইলাইট এবং পুরো দলের জন্য একটি অবিশ্বাস্য অর্জন।

রোলস রয়েসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ওয়ারেন ইস্ট বলেন, বিদ্যুৎচালিত উড়োজাহাজের মধ্যে সবচেয়ে দ্রুতগতির রেকর্ড গড়া নিঃসন্দেহে অ্যাক্সেল দল এবং রোলস রয়েসের জন্য অসামান্য অর্জন।

এক্সেলারেটিং দ্য ইলেক্ট্রিফিকেশন অব ফ্লাইট (অ্যাক্সেল) প্রকল্পের অংশ হিসেবে এ উড়োজাহাজটি তৈরি করা হয়েছে। এ প্রকল্পে অর্থায়ন করেছে অ্যারোস্পেস টেকনোলজি ইনস্টিটিউট (এটিআই), দ্য ডিপার্টমেন্ট ফর বিজনেস, এনার্জি অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল স্ট্র্যাটেজি অ্যান্ড ইনোভেট ইউকে।