রাজশাহীতে গ্রেপ্তার হওয়া দুই ছিনতাইকারীর কাছে পাওয়া গেছে পুলিশের একটি ওয়াকিটকি। মটোরোলা ব্র্যান্ডের এই ওয়াকিটকি সাধারণত পুলিশ ব্যবহার করে। এ ঘটনার পর কোনো থানা কিংবা পুলিশ ফাঁড়িতে ওয়াকিটকি খোয়া গেছে কি না-তা জানতে চেয়ে আরএমপি সদর দপ্তর থেকে চিঠি ইস্যু করা হয়েছে। এ বিষয়ে একটি বিশেষজ্ঞ দল কাজ শুরু করেছে। তাছাড়া গ্রেপ্তার দুজনের সাতদিনের রিমান্ডেরও আবেদন করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার দুজন হলেন- নগরীর শাহ মখদুম থানার বড় বনগ্রাম বাগানপাড়া এলাকার মাভেল ইসলাম (২৪) ও তার ভাই নেহাল ইসলাম নিরো (২২)।

পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্য পরিচয়ে টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ের সময় শনিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে নগরীর শিরোইল বাসষ্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাদের পুলিশ গ্রেপ্তার করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি ওয়াকিটকি উদ্ধার করা হয়। তখন এ ব্যাপারে কঠোর গোপনীয়তা অবলম্বন করা হয়। 

পুলিশের একাধিক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জানান, গ্রেপ্তার দুজন মূলত ছিনতাইকারী। ডিবি পুলিশের ভুয়া পরিচয় দিয়ে তারা মানুষকে জিম্মি করে ছিনতাই করে। 

নগরীর বোয়ালিয়া থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম জানান, ভুয়া ডিবি মাভেল ও নিরোর বিরুদ্ধে শনিবার রাতেই থানায় একটি ছিনতাই মামলা হয়েছে। ভুক্তভোগী তরিকুল ইসলাম মামলার বাদী হয়েছেন। রোববার সকালে দুজনকে আদালতে পাঠিয়ে তাদেরকে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। রিমান্ড আবেদনের শুনানি হয়নি।

তবে ওয়াকিটকির বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।