জেফ বেজোসকে টপকে বিশ্বে ধনীদের শীর্ষে স্থান করে নিয়েছেন ইলন মাস্ক। এর আগে টানা চার বছর তালিকায় সবার ওপরে ছিলেন বহুজাতিক ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠান অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা বেজোস। প্রখ্যাত সাময়িকী ফোর্বসের সর্বশেষ হিসাবে এ তথ্য উঠে এসেছে।

এখন ইলন মাস্ক ২১৯ বিলিয়ন ডলারের সম্পদের মালিক। বেজোসের মোট সম্পদের মূল্য ১৭১ বিলিয়ন ডলার। তবে ধনীদের তালিকায় শীর্ষ স্থানে চলে যাওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তেই ইলন মাস্কের ইলেকট্রিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলার শেয়ারের দাম এক লাফে ৩৩ শতাংশ বেড়ে গেছে। ফলে এক দিনেই তার সম্পদ আরও খানিকটা বেড়েছে।

শীর্ষ ধনীদের তালিকা ইলন মাস্কের জন্য আরও সম্পদের দুয়ার খুলে দিলেও দুঃসংবাদ শুনতে হয়েছে বেজোসকে। টেসলার শেয়ারমূল্য ধুম করে বেড়ে গেলেও অ্যামাজনের শেয়ারমূল্য পড়ে গেছে ৩ শতাংশ। তবে গত বছর বেজোস দাতব্য কাজে অনুদান বাড়িয়েছেন।

এবার দুই হাজার ৬৬৮ ধনকুবেরকে তালিকায় স্থান দিয়েছে ফোর্বস। তবে তাদের মোট সম্পদের পরিমাণ গত বছরের তুলনায় কমেছে। এ বছরে এসে ধনীদের মোট সম্পদ ১২ দশমিক ৭ ট্রিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। গত বছর ছিল ১৩ দশমিক ১ ট্রিলিয়ন ডলার। মহামারি, যুদ্ধ ও বিশ্ব বাজারের অস্থিতিশীলতাকে সম্পদ বৃদ্ধিতে ভাটার কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ বছর প্রায় ২৩৬ জন নতুন ধনী তালিকায় প্রথমবারের মতো স্থান পেয়েছেন। তাদের মধ্যে পপস্টার রিহান্না রয়েছেন। প্রথমবারের মতো বার্বাডোজ, বুলগেরিয়া ও উরুগুয়ের ধনকুবেররা ফোর্বসের শীর্ষ ধনীর তালিকায় স্থান পেয়েছেন।

এবার ৩৬তম বারের মতো শীর্ষ ধনীদের তালিকা প্রকাশ করল ফোর্বস।

অন্তত এক বিলিয়ন ডলারের মালিকদের নিয়ে শীর্ষ ধনীদের তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। তবে দুঃখজনক হলো দুই হাজার ৬৬৮ জনের মধ্যে মাত্র ৩২৭ জন নারী। তাদের মোট সম্পদের পরিমাণ এক দশমিক ৫৬ ট্রিলিয়ন ডলার।