ইন্টারনেটে কাঙ্ক্ষিত তথ্য পেতে খুঁজে পেতে ব্রাউজারের বিকল্প নেই। অনলাইনে তথ্য অনুসন্ধানে রয়েছে বেশ কিছু ব্রাউজার। কয়েক বছর ধরে জনপ্রিয়তায় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে গুগলের ক্রোম ব্রাউজার। ডেস্কটপ সংস্করণের ৬০ শতাংশ ব্রাউজিং হয় ক্রোমের মাধ্যমে। ক্রোম এতটাই প্রভাব বিস্তার করেছে যে অধিকাংশ ব্রাউজার এখন ক্রোমিয়াম রেন্ডারিং কোড ব্যবহার করে। ক্রোমের কাছাকাছি একমাত্র স্বাধীন প্রতিযোগী এখন 'ফায়ারফক্স'। ব্রাউজারের প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে একসময়ের অপ্রতিদ্বন্দ্বী মাইক্রোসফটের 'ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার' এখন এজ ব্রাউজার নামে নতুন করে এসেছে।
ক্রোম, এজ, ফায়ারফক্স, অপেরা, সাফারিসহ শীর্ষ ও বহুল ব্যবহূত ব্রাউজারগুলোর মধ্যে কোনটি সেরা, ব্যবহারকারীরা কোনটিতে সন্তুষ্ট বা আপনার জন্য কোন ব্রাউজারটি সবচেয়ে ভালো হবে- সেটা জানতে হবে।

গতি, সুরক্ষা, গোপনীয়তা এবং গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্যগুলো বিবেচনায় তুলনা করে ব্যবহারকারীদের জন্য 'পিসিম্যাগ' শীর্ষ পাঁচটি ব্রাউজার পরীক্ষা করে ব্যবহারকারীদের বেছে নেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে।

গুগল ক্রোম
ডিজাইন ও গতি বিবেচনায় গুগল ক্রোম অনন্য। পিসিম্যাগের এইচটিএমএল৫ টেস্ট ওয়েবসাইটে এটি সর্বোচ্চ নম্বর পেয়েছে। উন্নত প্রযুক্তির গতি পরীক্ষা- 'জেটস্ট্রিম ২ বেঞ্চমার্কে'ও শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে। ব্রাউজারটি ডিফল্ট আকারে থার্ডপার্টি ট্র্যাকিং কুকিজ প্রত্যাখ্যান করে। ক্রোমের অন্যতম সুবিধা হলো- গুগল নিউজ, জিমেইল, ইউটিউবসহ অন্য সার্চে ক্রোম সুইচ করলেও তা বিদ্যমান থাকবে, আবার নতুন করে খুঁজতে হয় না। এ ছাড়া ক্রোমের মোবাইল সংস্করণে বুকমার্ক, পাসওয়ার্ড এবং সেটিংসের নানা সুবিধা দেয়। ডেস্কটপের মতো এটি গুগল অনুসন্ধানে ভয়েস কমান্ডের ব্যবহারের সুবিধা রয়েছে। এর সর্বশেষ সংস্করণ ১০০, তিন ডিজিট হওয়ায় সংশ্নিষ্ট কিছু সমস্যা দেখা দেয়, তবে গুগল নিয়মিত নিরাপত্তা ও নতুন বৈশিষ্ট্য সংযোজনে কাজ করছে। এত সুবিধার পরও এতে বিল্ট-ইন ভিপিএন, ট্যাব অর্গানাইজেশন টুলস, ক্রিপ্টোকারেন্সি লকার, রিডিং মোড, শেয়ার বাটন, স্ট্ক্রিনশট টুলগুলো না থাকার যৌক্তিকতা মেনে নিয়েছেন ব্যবহারকরীরা। এর দুর্বল বিজ্ঞাপন ব্লকিং অপশন নেতিবাচক হিসেবে বিবেচিত হলেও এটি এক জনপ্রিয় বহুল ব্যবহূত ব্রাউজার।

মজিলা ফায়ারফক্স
অলাভজনক প্রতিষ্ঠান মজিলা ফাউন্ডেশনের একটি প্রকল্প 'ফায়ারফক্স'। অনলাইন গোপনীয়তার জন্য মজিলার ওয়েব ব্রাউজারটি সত্যিই অসাধারণ। এর 'মাল্টি-অ্যাকাউন্ট কনটেইনার এক্সটেনশন' একই সাইটে ভিন্ন ভিন্ন ট্যাবে একাধিক লগইনের সুবিধা দেয়। এতে করে অন্য সব অ্যাকাউন্ট থেকে বের হয়ে নতুন করে অন্য ব্রাউজার উইন্ডো বা অন্য ব্রাউজার খুলতে হয় না। এটি নতুন এইচটিএমএল এবং সিএসএস সমর্থন করে। এটি ওপেন-সোর্স এআর এবং স্পিচ সিন্থেসিস মান নিয়ে কাজ করে। একাধিক সেবায় ভিন্ন ভিন্ন জটিল পাসওয়ার্ড তৈরি করে তা মাস্টার পাসওয়ার্ডের অধীনে রাখতে এতে রয়েছে 'লকওয়াইজ' নামে পরিষেবা। লগইন করা যে কোনো ডিভাইস থেকে একটি ওয়েবপেজ ট্যাব এক ডিভাইস থেকে অন্য ডিভাইসে পাঠানো যাবে মোবাইল ফায়ারফক্স অ্যাপে; যা ডেস্কটপ ও আইফোন তাৎক্ষণিকভাবে দেখা যাবে। ওয়েব ঠিকানার স্থানে আছে 'পকেট বাটন', যা পেজ সংরক্ষণ এবং এক ক্লিকেই দেখা যাবে। ব্রাউজারটি কাস্টমাইজযোগ্য, যা প্রয়োজন অনুযায়ী বাটন সাজাতে, উইন্ডো বর্ডার প্যাটার্ন এবং রং পরিবর্তন করা সুবিধাও আছে মজিলা ফায়ারফক্সে।

অ্যাপল সাফারি
গতি ও সক্ষমতা বিবেচনায় সাফারির সুনাম দীর্ঘদিনের। ম্যাক এবং আইওএসের জন্য এটি একটি শক্তিশালী ব্রাউজার। ওয়েব সার্চের সক্ষমতার কিছু ক্ষেত্রে এটি অগ্রপথিক। ব্যবহারকারী পড়তে চান এমন ওয়েব নিবন্ধ থেকে অপ্রয়োজনীয় ভিডিও ফর্ম ও অ্যাডের মতো ক্লাটারকে বাধাগ্রস্তকারী রিডিং মোড প্রথম ব্যবহার করা হয় ২০১০ সালে, যা ক্রোম ছাড়া সব ব্রাউজারে ব্যবহূত হয়েছে। ওয়েব ট্র্যাকারদের ব্যবহারকারী চিহ্নিত করা থেকে রক্ষা করতে সম্প্রতি অ্যাপল 'ফিংগার প্রিন্টিং প্রটেকশন' এনেছে। এতে সাইডবার ও ফায়ারফক্সের মতো ট্যাব গ্রুপ রয়েছে। এটি অ্যাপলের আই-মেসেজ, আই-ক্লাউড, ভিপিএন ও আইপি অ্যাড্রেস ব্যবহারের সুবিধা রয়েছে।

মাইক্রোসফট এজ
মাইক্রোসফট এজ নতুন এক দিগন্ত উন্মোচিত করেছে। এটি উইন্ডোজের পাশাপাশি অ্যাপল ম্যাকওএসে ব্যবহারযোগ্য। এইচটিএমএল৫ পরীক্ষায় এজ সক্ষমতার দিক থেকে ক্রোমের পাশাপাশি অবস্থান করছে। এর গোপনীয়তা ও কাস্টমাইজ স্টার্ট পেজ এবং ওয়েব সার্চের জন্য সমন্বিত ফিচার দারুণ। শুধু সক্ষমতাই নয়- ডিস্ক ব্যবহার ও পারফরম্যান্সের দিক থেকে এটি অনেকটাই এগিয়ে। দ্রুত ওপেন হওয়া, স্টার্টআপ বুস্ট প্রযুক্তি, মেমোরি বাঁচাতে স্লিপিং ট্যাব রয়েছে ব্রাউজারটিতে। বিজ্ঞাপন ও অপ্রয়োজনীয় দৃশ্যমান বস্তু আটকানোসহ 'লাইফলাইক নিউট্রাল ভয়েজের মাধ্যমে এটি উচ্চ স্বরে ওয়েবপেজ টেক্সট পড়তে সক্ষম। এর সাইডবারে কন্টেন্ট টেনে তা শেয়ার করা যায়। বেসিক, ব্যালান্সড ও স্ট্রিক্ট- এই তিন স্তরের প্রাইভেসি সেট করার বিশেষ সুবিধা ছাড়াও আছে ফায়ারফক্সের মতো ফিঙ্গারপ্রিন্ট ট্র্যাকিং সুরক্ষা। মোবাইল সংস্করণে ডেস্কটপ থেকে মোবাইলে মুভ করা ও নির্ভরযোগ্য পাসওয়ার্ড পরিসেবা ব্যবহারের সুযোগ দেয়।

অপেরা
পুরোনো ও জনপ্রিয় ব্রাউজার অপেরার হাত ধরেই ট্যাব, সিএসএস এবং বিল্ট-ইন সার্চ বক্সের মতো মৌলিক উদ্ভাবন হয়েছে। উচ্চ পারফরম্যান্স এবং ভিপিএন বিশ্বাসীদের জন্য এটি আস্থা তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। এর বিল্ট-ইন ভিপিএন ট্রাফিক থেকে রক্ষা ও পুনরায় রুট করাসহ বিজ্ঞাপন, ক্রিপ্টো-মাইনিং ও ট্র্যাকারদের থেকে রক্ষার জন্য রয়েছে বিল্ট-ইন অ্যাড ব্লকার। কম ডাটা খরচ হওয়ায় এটি মোবাইল ডাটা ব্যবহারকারীদের জন্য প্রথম পছন্দ।

বিষয় : ওয়েব ব্রাউজার গুগল ক্রোম মজিলা ফায়ারফক্স অ্যাপল সাফারি

মন্তব্য করুন