স্থানীয় স্টার্টআপ এবং তরুণদের আইসিটি দক্ষতার বিকাশে হুয়াওয়ে তিনটি নতুন প্রতিযোগিতা চালু করেছে। প্রোগ্রামগুলো হচ্ছে- আইসিটি ইনকিউবেটর, অ্যাপ ডেভেলপার এবং টেক উইমেন। গতকাল বুধবার রাজধানীতে এই তিন প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, তিনটি প্রোগ্রামই নতুন স্টার্টআপের সূচনা এবং মোবাইল অ্যাপ তৈরির ধারণা বাস্তবায়নে ডিজাইন করা হয়েছে। স্টার্টআপনির্ভর আইসিটি ইনকিউবেটর প্রতিযোগিতায় আইডিয়া এবং সূচনা পর্যায় নামে ভাগ করা হয়েছে। উভয় পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন পাবেন পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত নগদ পুরস্কার। বিজয়ী স্টার্টআপের প্রধান নির্বাহীরা বিদেশে সফল স্টার্টআপের কার্যক্রম পরিদর্শনের সুযোগ পাবেন। চ্যাম্পিয়ন উদ্যোক্তা পাবেন সর্বোচ্চ ১ লাখ ২৫ হাজার ডলার এবং পরবর্তী দুই বিজয়ী পাবেন ৮০ হাজার ডলার মূল্যের হুয়াওয়ে ক্লাউড ক্রেডিট। প্রথম ও দ্বিতীয় রানারআপ পাবেন যথাক্রমে সর্বোচ্চ তিন লাখ ও এক লাখ টাকা পর্যন্ত পুরস্কার। এ প্রতিযোগিতায় কৌশলগত অংশীদার আইডিইএ এবং স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড।
অন্য দুটি প্রতিযোগিতার এককভাবে আয়োজন করছে হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ)। হুয়াওয়ে অ্যাপ ডেভেলপার এবং হুয়াওয়ে টেক উইমেন প্রতিযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন। একটি দলে সর্বোচ্চ দুই সদস্য থাকতে পারবেন। প্রতিযোগিতায় ৩.০-এর ওপরে সিজিপিএসহ তৃতীয় বা চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীরা আবেদন করার যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। হুয়াওয়ে টেক উইমেন প্রোগ্রামটিতে শুধু নারীরা অংশগ্রহণ করতে পারবেন।
অ্যাপ ডেভেলপার এবং হুয়াওয়ে টেক উইমেন প্রতিযোগিতার বিজয়ী পাবেন তিন লাখ টাকা পর্যন্ত নগদ পুরস্কার। থাকছে বিশ্বব্যাপী সফল অ্যাপ ডেভেলপারদের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ এবং পাঁচ হাজার ডলার পর্যন্ত হুয়াওয়ে ক্লাউড রিসোর্স। প্রথম ও দ্বিতীয় রানারআপ পাবেন যথাক্রমে সর্বোচ্চ দুই ও এক লাখ টাকা প্রাইজমানি এবং তিন হাজার ও দুই হাজার ডলারের ক্লাউড রিসোর্স। অনুষ্ঠানে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, জ্ঞানভিত্তিক অর্থনীতি এবং উদ্ভাবনী বাংলাদেশ বিনির্মাণের জন্য আমাদের একটা স্টার্টআপ কমিউনিটি তৈরি করতে হবে। সেই বিষয়টি এগিয়ে দিতে এই প্রতিযোগিতাগুলোর মাধ্যমে চমৎকার একটা পার্টনারশিপ মডেল হুয়াওয়ে গড়ে তুলেছে। অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ের সিইও প্যান জুনফেং, ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, আইডিইএ প্রজেক্টের প্রকল্প পরিচালক আলতাফ হোসেন, স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামি আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। হুয়াওয়ের এ তিন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণে এরই মধ্যে নিবন্ধন শুরু হয়েছে, যা চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত। নিবন্ধনসহ বিস্তারিত https://hibator.com ঠিকানায়।