কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) প্রযুক্তি নিয়ে দীর্ঘদিন কাজ করছে প্রযুক্তি জায়ান্ট গুগল। 'রেসপন্সিবল এআই' নামে প্রকল্পে 'ল্যামডা' নামে ডেভেলপ হচ্ছে গুগলের কৃত্রিম বুদ্ধির রোবট। সফলভাবে বাস্তবায়নে গুগলের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রকল্পে কাজ করছেন একঝাঁক কর্মী। তাঁদের মধ্যে ব্লেক লেমইনও ছিলেন। তবে তিনি সম্প্রতি দাবি করে বসেন, গুগলের এই কৃত্রিম বুদ্ধির সফটওয়্যারের 'অনুভূতি' আছে। মানুষের যে রকম অনুভূতি, ল্যামডাও তেমন অনুভূতিপ্রবণ। শুধু দাবি করে তিনি থেমে থাকেননি, গণমাধ্যমেও বিবৃতি দিয়েছেন। এতেই ক্ষেপেছে গুগল। অনুমতি ছাড়া গণমাধ্যমে বিবৃতি দেওয়ায় লেমইনকে গত মাসে ছুটিতে পাঠিয়েছিল গুগল। তবে শেষমেশ ওই সফটওয়্যার প্রকৌশলীকে চাকরিচ্যুতই করল মার্কিন এ প্রযুক্তি কোম্পানিটি। গুগল দাবি করেছে, ব্লেক লেমইন তাদের গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পে যুক্ত থাকলেও কোম্পানির তথ্য নিরাপত্তার বিষয়টি লঙ্ঘন করেছেন; এর মধ্যে পণ্যের নিরাপত্তার প্রশ্নও রয়েছে। তিনি ল্যামডা সম্পর্কে অসত্য তথ্য প্রচার করে নীতিমালা ভঙ্গ করেছেন। গুগলের এক মুখপাত্র বলেন, এটা খুবই অপ্রত্যাশিত। তিনি আমাদের একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পে যুক্ত ছিলেন। কিন্তু দায়িত্বহীনভাবে প্রকল্পটি সম্পর্কে মনগড়া তথ্য দিয়েছেন। এটি নিরাপত্তা নীতির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। এটি আত্মঘাতী ও বিপজ্জনক প্রচারণা। এ ধরনের অপপ্রচার থামাতে আমরা তাঁকে চাকরিচ্যুত করতে বাধ্য হয়েছি। কম্পিউটারের কথোপকথনকে আরও ভালোভাবে অনুকরণে 'ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল ফর ডায়ালগ অ্যাপ্লিকেশন (ল্যামডা)' গত বছর উন্মোচন করে গুগল। (আগামীকাল টেকলাইফে পড়ূন এ বিষয়ে বিস্তারিত 'ল্যামডার কি অনুভূতি আছে?')
প্রযুক্তি প্রতিদিন ডেস্ক

বিষয় : গুগলকর্মী ব্লেক লেমইন ল্যামডা

মন্তব্য করুন