ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ডিজিটাল পিআর প্ল্যাটফর্ম ‘পেপারকেবল’

ডিজিটাল পিআর প্ল্যাটফর্ম ‘পেপারকেবল’

.

আইসিটি ডেস্ক

প্রকাশ: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ০১:২১

দেশের প্রথম ডিজিটাল পিআর প্ল্যাটফর্ম হিসেবে যাত্রা করেছে পেপারকেবল। পিআর শিল্পকে ডেটা ও পরিসংখ্যানের মাধ্যমে ডিজিটাইজ করতেই এমন উদ্যোগ।
ধারণানির্ভর তথ্যের মাধ্যমে করা কাজ থেকে বেরিয়ে আসতে সহায়তা করবে ডিজিটাল পিআর প্ল্যাটফর্ম পেপারকেবল। অনলাইন গণমাধ্যমে ডিজিটাল পিআর প্ল্যাটফর্ম যে কোনো প্রচারণায় কোন গণমাধ্যমের সংবাদ কত মানুষের কাছে পৌঁছেছে, কোন এলাকা থেকে কত সময় ধরে তা পড়েছে– এমন সংশ্লিষ্ট আরও তথ্য পাওয়া যাবে; যা ব্র্যান্ড বা কোম্পানিকে সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সহায়ক হবে। ডিজিটাল পিআর প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে গণমাধ্যম ও বিজ্ঞাপনদাতার মধ্যে নিবিড় যোগাযোগ স্থপিত হবে। সারাদেশে পেপারকেবলের ডিজিটাল পিআর সুবিন্যস্ত পিআর ডিস্ট্রিবিউশন কৌশল একই সঙ্গে কাজ করবে। এতে সময় ও সম্পদ দুটোই বাঁচবে। ফলে ব্র্যান্ড ও এজেন্সিকে সময়ক্ষেপণকারী ম্যানুয়াল কাজ থেকে বের হতে সহায়ক হবে। ব্র্যান্ড ও এজেন্সিকে আর ধারণানির্ভর কাজ করতে হবে না। ব্র্যান্ড ও এজেন্সির কাজের মান উন্নত হবে। ডিজিটাল পিআরের মাধ্যমে সব ধরনের গণমাধ্যম অসংগঠিত পিআর থেকে বের হয়ে সহজ পদ্ধতির মধ্যে চলে আসবে। ফলে সব গণমাধ্যমের রাজস্ব আয় বাড়বে বলে জানান বক্তারা।

ইনোভেটিভ প্ল্যাটফর্ম প্রসঙ্গে এ মেজ ভেঞ্চারের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, পিআরের মতো বৃহৎ শিল্পের কাজকে ম্যানুয়াল থেকে ডিজিটাইজ করাই প্রধান লক্ষ্য। এতে বিজ্ঞাপনদাতা, ব্র্যান্ড, এজেন্সি ও গণমাধ্যম– সবাই লাভবান হবে। ফলে শিল্পের প্রবৃদ্ধি ঘটবে। অন্যদিকে শিল্পের সঙ্গে জড়িতরা সঠিক ডেটা ও পরিসংখ্যানের মাধ্যমে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন বলে জানান উদ্যোক্তারা।
এ মেজ ভেঞ্চার দেশের মার্কেটিং ইন্ডাস্ট্রিকে ডিজিটাল করা ও খাতের উত্তরোত্তর প্রবৃদ্ধির জন্য কাজ করছে। বিশ্বের জটিল বিষয়ে মার্কেটিং সল্যুশন নিয়ে কাজ করে এ মেজ ভেঞ্চার। পরিসংখ্যান ও তথ্যনির্ভর মার্কেটিংয়ে লক্ষ্য অর্জনে সহায়ক ভূমিকা রাখাই প্রতিষ্ঠানের মূল লক্ষ্য।

আরও পড়ুন

×