দারাজ ভিলেজের সুবিধা পাচ্ছে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষ

প্রকাশ: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০     আপডেট: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

বৃহত্তম অনলাইন মার্কেটপ্লেস দারাজ বাংলাদেশ

বৃহত্তম অনলাইন মার্কেটপ্লেস দারাজ বাংলাদেশ

দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও বৃহত্তম অনলাইন মার্কেটপ্লেস দারাজ বাংলাদেশ (daraz.com.bd)বিগত কয়েক বছর ধরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে তার অত্যাধুনিক সেবা দিয়ে আসছে। যার ফল শ্রুতিতে লাখো বাংলাদেশি এখন ঘরে বসেই উপভোগ করছেন হাজার হাজার পণ্য। গ্রাহকদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন ও আরো সহজতর করতে দারাজ প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ব্যবসায়িক উদ্ভাবন করে যাচ্ছে। এর মধ্যে যুগান্তকারী একটি উদ্যোগ হল দারাজ ভিলেজ যা দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষদের কাছে কমার্স সেবা পৌঁছে দেয়। 

দারাজ ভিলেজ কি এবং কেন?

দারাজ ভিলেজ প্রকল্প মূলত গ্রামীণ মানুষকে ই-কমার্সের সঙ্গে সংযুক্ত করা এবং তাদের আস্থা অর্জন। গ্রাহক এবং বিক্রেতাদের দারাজ অনলাইন শপে অ্যাক্সেস পেতে সহায়তা করার জন্য গ্রামের বাজারগুলোতে ফ্রি ওয়াইফাই অঞ্চল তৈরি করা হচ্ছে। এই প্রক্রিয়ায় একজন দারাজ (daraz.com.bd) এজেন্ট নিযুক্ত থাকেন,যিনি স্থানীয় গ্রাহকদের দারাজ অ্যাপে কেনাকাটা করতে সাহায্য করেন এবং তাদের পক্ষ থেকে পণ্য অর্ডার করেন। এই ক্ষেত্রে গ্রাহক শুধুমাত্র পণ্য অর্ডারই নয়,তার নিজস্ব পণ্য দারাজ ওয়েবসাইটে অন্তর্ভুক্ত করে উভয়ভাবেই লাভবান হতে পারেন। দারাজ ভিলেজের সবচেয়ে বড় সুবিধা হল গ্রাহক নিজস্ব স্মার্টফোনে ই-কমার্স ব্যবহার জানা ছাড়াই বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তে বসে দারাজে সেরা দামে সেরা পণ্যটি উপভোগ করতে পারবেন।

দারাজ ভিলেজ সংখ্যা এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের ২১টি জেলায় ৯৫টি দারাজ ভিলেজ চালু করা হয়েছে এবং এই বছরের মধ্যে সর্বমোট ২৬০টি দারাজ ভিলেজ চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে। যেহেতু দারাজ ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা গ্রামাঞ্চলের মানুষের নিকট পৌঁছে দেওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে কাজ করছে সেহেতু ভবিষ্যতে দারাজ এই ভিলেজ প্রকল্পে ওয়াইফাই হটস্পট এর মাধ্যমে ফ্রি ইন্টারনেট সুবিধা দিতে বদ্ধ পরিকর। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি