‌ভালো নাটক প্রতিদিন তৈরি হয় না: স্বাগতা

প্রকাশ: ১২ মে ২০১৯     আপডেট: ১২ মে ২০১৯      

বিনোদন প্রতিবেদক

স্বাগতা

স্বাগতা। অভিনেত্রী, মডেল, কণ্ঠশিল্পী ও উপস্থাপক। ঈদের নাটক ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা নিয়ে ব্যস্ত আছেন তিনি। এছাড়াও দেশ টিভিতে আজ রাতে প্রচার হবে তার অভিনীত একক নাটক 'সাত্তার ড্রাইভার'। সাকিব আহমেদ রচিত ও নওমি কামরুন বিধু পরিচালিত এ নাটক ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে

অভিনয়ের পর কখনও মনে হয়েছিল, 'সাত্তার ড্রাইভার' নাটকটি দর্শকের ভালো লাগবে কি-না?

সাকিব আহমেদের লেখা 'সাত্তার ড্রাইভার' নাটকের গল্প আমার কাছে ভিন্ন ধরনের মনে হয়েছিল। অন্তত গৎবাঁধা নাটকের গল্প থেকে অনেকটা আলাদা বলা যায়। পরিচালক নওমি কামরুন বিধু যখন গল্প ও নাটকের চরিত্র পর্দায় তুলে ধরার বিষয়টি নিয়ে তার পরিকল্পনার কথা বলেছিলেন, তখনও মনে হয়েছে ভালো কিছু হবে। যদিও নাটকের বাজেট, নানা পরিস্থিতির কারণে সবকিছু শতভাগ পরিকল্পনা মাফিক হয় না। তারপরও আমি বলব, নাটক দেখার পর দর্শক হতাশ হবেন না। অনেকদিন আগে এ নাটকে কাজ করেছি, তারপরও মনে আছে চঞ্চল চৌধুরী, আজাদ আবুল কালামসহ নাটকের সবাই ভালো কিছু করার ইচ্ছায় কতটা নিবেদিত ছিলেন।

সামনে ঈদ, অভিনয়ের ব্যস্ততা নিশ্চয়ই আগের থেকে বেড়ে গেছে? 

ক'দিন আগেও ভীষণ ব্যস্ত ছিলাম। এখন ব্যস্ততা একটু কম। কারণ, এবার আগেভাগেই বেশ কিছু ঈদের নাটকে অভিনয় করে ফেলেছি। এখন তো ঝড়-বৃষ্টির দিন, কখন শুটিং বন্ধ হয়ে যায়- তা নিয়ে অনেকেই ভাবনায় আছেন। অনেক নির্মাতা আগেভাগেই শুটিং শেষ করে ফেলতে চাচ্ছেন। শুটিং যেন পণ্ড না হয়ে যায়, সেজন্য অনেকে দেশের বাইরে গিয়ে কাজ করেছেন। আমিও ক'দিন আগে দেশের বাইরে গিয়ে তিনটি একক নাটকের শুটিং করেছি। দেশে ফিরেই ব্যস্ত হয়ে পড়েছি সকাল আহমেদের একটি নাটকের কাজ নিয়ে। সামনে আরও কিছু নাটকে অভিনয়ের কথা আছে। এর বাইরে এই ঈদে একুশে টিভিতে একটি লাইভ সঙ্গীতানুষ্ঠান উপস্থাপনা করব। 'গুগলি' নামের একটি গেম শোতেও উপস্থাপনা করার কথা আছে। সব মিলিয়ে এবারের ঈদ ব্যস্ততার মধ্য দিয়েই কাটবে। 

ঈদের যেসব নাটকে অভিনয় করলেন সেগুলো দর্শকের সাড়া পাবে কি-না, তা নিয়ে ভেবেছেন?

যতটা পারি গল্প, চরিত্র যাচাই-বাছাই করে কাজ করার চেষ্টা করি। কিন্তু এটা নিশ্চিত করে বলা কঠিন- যে কাজগুলো করেছি তা দর্শকের ভালো লাগবে কি-না। দর্শকের কখন কী ভালো লাগে তা অনুমান করা কঠিন। তাছাড়া ভালো নাটক প্রতিদিন তৈরি হয় না। এজন্য কেউ চাইলেও সব সময় কোনো ভালো কাজ করতে পারবেন এমন কোনো নিশ্চয়তা নেই। আবার এমনও হয়, কোনো নাটক বা টেলিছবির গল্প, চরিত্র, নির্মাণ সময়োপযোগী হওয়ার পরও সেভাবে দর্শক সাড়া পাওয়া যায় না। অথচ অনেক সময় খুব সাধারণ কিংবা চটুল হাসির গল্পের নাটকও দর্শকের মাঝে আলোড়ন তুলে যাচ্ছে। তাই ভালো-মন্দের বিচার করাও কঠিন একটি কাজ। আমার কাছে যে কাজটি সময়োপযোগী, যার গল্প অন্যান্য নাটক থেকে কিছুটা ভিন্ন ধরনের মনে হয়, সেটাই করার চেষ্টা করি। 

নাটকের পাশাপাশি আবার চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন শুনলাম? 

ঠিকই শুনেছেন। প্রায় ছয় বছর পর আবার সিনেমায় অভিনয় করছি। সিনেমার নাম 'মানুষের বাগান'। এটি পরিচালনা করছেন নূরুল আলম আতিক। এরই মধ্যে সিনেমার শুটিং শেষ হয়েছে। দর্শক অসাধারণ এক গল্প খুঁজে পাবেন এই সিনেমায়। কিন্তু গল্প কী নিয়ে, আর কে অভিনয় করছেন- সে বিষয়ে এখনই কিছু বলতে চাই না। 

বেশ কিছুদিন ধরে অভিনয়ের চেয়ে উপস্থাপনাকে প্রাধান্য দিচ্ছেন- কারণ কী?

উপস্থাপনা এখন নেশায় পরিণত হয়েছে। ভাবছি, অভিনয়ের পাশাপাশি এই কাজটা নিয়মিত করব। কারণ, গত কয়েক বছর একনাগাড়ে অসংখ্য নাটক, টেলিছবিতে অভিনয় করেছি। কিন্তু খেয়াল করে দেখেছি, যত কাজ করেছি, তার অনেক নাটক, টেলিছবি দর্শকের মাঝে সাড়া জাগাতে পারেনি। এজন্য এখন বাছ-বিচার করে অভিনয় করছি। ভালো কাজের সংখ্যা কম হওয়ায় অভিনয়ের পাশাপাশি উপস্থাপনায় মনোযোগী হয়েছি। বিটিভিতে ছায়াছন্দ, এটিএন বাংলায় রান্নার অনুষ্ঠান, এশিয়ান টিভিতে সঙ্গীতানুষ্ঠান, এনটিভিতে লাফটার শো, বাংলাভিশনে সিনেমাবিষয়ক অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করে সাড়াও পেয়েছি। এজন্য উপস্থাপনা থেকে সরে আসতে চাচ্ছি না।

বিষয় : স্বাগতা সাক্ষাৎকার বিনোদোন