সেরেনাকে হারিয়ে বিয়ানকার ইতিহাস

প্রকাশ: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: মার্কা

বিয়ানকার নামের আগে কিশোরী শব্দটা ব্যবহার করেছে বেশ কিছু সংবাদ মাধ্যম। কিছুটা বিস্ময় নিয়ে। কারণ অভিজ্ঞ এবং দারুণ ফর্মে থাকা ৩৭ বছর বয়সী সেরেনা উইলিয়াম ফাইনালে হেরেছে। তাও কানাডার ১৯ বছর বয়সী বিয়ানকা আন্দ্রিসকিউর কাছে। মার্কিন টেনিস তারকা সেরেরা উইলিয়াম রেকর্ড ২৪ গ্রান্ডস্লাম জয়ের পথে ছিলেন। কিন্তু শেষ গেমে তাকে হারিয়ে ইতিহাসের পাতায় ওঠে গেছেন বিয়ানকা।

তিনি ৬-৩, ৭-৫ গেমে সেরেনাকে হারিয়েছেন। প্রথমবারের মতো মূল ড্রতে জায়গা পান কানাডিয়ান ১৫তম বাছাই বিয়ানকা। তাতেই বাজিমাত করলেন তিনি। প্রথম কানাডিয়ান হিসেবে ইতিহাস গড়ে জিতলেন গ্র্যান্ড স্লাম। সেরেনাকে বঞ্চিত করলেন ২৪তম গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী কিংবদন্তি মার্গারেট কোর্টের পাশে বসার।

সেরেনাকে হারিয়ে গ্রান্ড স্লাম জয়ের কথা যেন নিজেই বিশ্বাস করতে পারছেন না বিয়ানকা। ছবি: বিবিসি

এর আগে জাপানের নাওমি ওসাকার কাছে ফাইনালে হেরে যান সেরেনা। সেবার আম্পায়ারের সঙ্গে বিতর্কে জড়ান তিনি। এবার হয়তো সেজন্য ভীতি নিয়ে শুরু করেছিলেন। প্রথমেই দুই ভুল করে বসেন তিনি। সুযোগ নিয়ে বিয়ানকা ২-০ গেমের লিড নিয়। প্রথম সেটে ৬-৩ গেমে এগিয়ে থাকেন কানাডার এই কিশোরী।

এরপর দ্বিতীয় সেটে আরও বাজে শুরু করেন সেরেনা। সুযোগ নিয়ে ৫-১ গেমে এগিয়ে যান বিয়ানকা। কিন্তু মার্কিন টেনিস তারকা দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ান। সমতা করেন ৫-৫ গেমে। মনোবল ধরে রেখে শেষ পর্যন্ত ৭-৫ গেমে দ্বিতীয় সেটে জয় পায় বিয়ানকা। এ নিয়ে সেরেনা টানা চারটি মেজর ফাইনালে হারলেন। আর ২০০৬ সালের পর প্রথম কিশোরী হিসেবে গ্লান্ডস্লাম জিতলেন বিয়ানকা। এর আগে শারাপোভা এই কীর্তি গড়েন।

টানা চারটি মেজর ফাইনালে হারা মার্কিন টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়াম স্বভাবতই হতাশ। ছবি: বিবিসি

গ্রান্ডস্লাম জিতে আবেগাপ্লুত কানাডার এই তরুণী বলেন, 'স্বপ্নের মতো এক বছর কাটছে। আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞ, এই শিরোপা জিতে নিজেকে ধন্য মনে করছি। এই মুহূর্ত পাওয়ায় জন্য অনেক পরিশ্রম করেছি। সেরেনার মতো কিংবদন্তির বিপক্ষে খেলতে পারা অসাধারণ ব্যাপার।' সেরেনা বলেন, 'বিয়ানকা অবিশ্বাস্য একটি ম্যাচ উপহার দিয়েছে। আমার গর্বই লাগছে ওর জন্যে।'