ভার্চুয়াল কোর্টে নাজেহাল নাদাল!

প্রকাশ: ২২ এপ্রিল ২০২০     আপডেট: ২২ এপ্রিল ২০২০       প্রিন্ট সংস্করণ

স্পোর্টস ডেস্ক

লকডাউনে থেকে রীতিমতো ছটফট করছেন রাফায়েল নাদাল। খেলা নেই, অনুশীলনও নেই। ত্যক্ত-বিরক্ত নাদাল তাই ভক্তদের সঙ্গে কথা বলতে হাজির হয়েছিলেন ইনস্টাগ্রাম লাইভে। আর এটাই ছিল ইনস্টাগ্রাম লাইভে তার প্রথম অভিজ্ঞতা। কিন্তু অভিজ্ঞতাটা সুখকর হলো না; হলো অস্বস্তিকর। ঠিকমতো লাইভ চ্যাটিং করতে না পারায় ঠাট্টাচ্ছলে খোঁচাই মেরে বসলেন অ্যান্ডি মারে।

ব্রিটিশ টেনিস তারকা নাদালের ১২ ফ্রেঞ্চ ওপেন শিরোপাকে ইঙ্গিত করে বলেন, 'সে ৫২টি ফ্রেঞ্চ ওপেন জিততে পারে, কিন্তু ইনস্টাগ্রাম চালাতে জানে না!' একই সুরে মজা নিয়েছেন সুইস টেনিস কিংবদন্তি রজার ফেদেরারও।

শুরুটা কিন্তু ভালোই ছিল। লাইভে এসে কয়েকজন ভক্তের প্রশ্নের জবাব দেন মাদ্রিদে অবস্থান করা নাদাল। গোলমাল বাধে ফেদেরার, অ্যান্ডি মারে আর স্টান ভাবরিঙ্কারা যখন নাদালের লাইভে আসেন। কিন্তু ইনস্টাগ্রাম লাইভে প্রথম আসা নাদাল বুঝতে পারছিলেন না ওদেরকে কীভাবে চ্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানাবেন। এই-ওই অপশনে ক্লিক করতে করতে ফেদেরার-মারেদের একবার যুক্ত করছিলেন, ফের কেটে দিচ্ছিলেন। নাদালের ওই আনাড়িপনায় কমেন্টস বক্সে মারে লেখেন, 'লাইভ চ্যাটে কীভাবে আমন্ত্রণ জানাতে হয়, এটা বোধ হয় রাফা জানে না। আরও কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে হবে মনে হচ্ছে।'

মারের মন্তব্য দেখে নাদাল নিজের অসহায়ত্বের কথা স্বীকার করে বলেন, 'আশা করি তোমরা আমার লাইভ উপভোগ করছ। তবে দেখতেই পাচ্ছ, আমি সবকিছু কেমন গুলিয়ে ফেলছি। তবে ঠিক করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।'

বেশ কয়েকবার চেষ্টার পর একপর্যায়ে ফেদেরারকে লাইভ চ্যাটে অ্যাড করতে সক্ষম হন নাদাল। তখন খোঁচা দেন ফেদেরার, 'আমরা কি যুক্ত হতে পেরেছি? মাই গড, আমি বুঝতে পারছি না তুমি যুক্ত করতে পেরেছ না আমি যুক্ত হতে পেরেছি। কীভাবে করতে পারলে শেষ পর্যন্ত? নাদাল তখন উত্তর দেন, 'আমিই তোমাকে যুক্ত করেছি।' ফেদেরার জবাবে বলেন, 'আমি কেবল ঢুকছিলাম আর বের হচ্ছিলাম। কতবার যে এ রকম হয়েছে গুনে শেষ করা যাবে না। তোমার আসলে অন্য কাউকে ডাকা উচিত ছিল।'

দীর্ঘ চেষ্টার পর ১৯ ও ২০টি গ্র্যান্ডস্লাম জয়ী দুই টেনিস তারকা যখন লাইভ চ্যাট শুরু করেন, তখন উঠে আসে কোয়ারেন্টাইনের সময় কাটানো আর নিজেদের খেলা নিয়ে নানান আলোচনা। অনুশীলন করতে না পারায় হতাশার কথা জানান নাদাল। তবে ফেদেরারের কথায় ছিল স্বস্তির সুর। ফেব্রুয়ারিতে হাঁটুর অস্ত্রোপচার করিয়েছেন। এখন চলছে পুনর্বাসন প্রক্রিয়া।