সাগরের রঙ বদলাচ্ছে শৈবাল কণা

প্রকাশ: ১৬ জুলাই ২০১৯      

নীল সাগর অনেক বেশি সবুজাভ হয়ে উঠবে। চলতি শতকের শেষদিকেই বদলটা স্পষ্ট হতে শুরু করবে। জানাচ্ছেন ব্রিটেনের সাউথাম্পটন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল গবেষক। 'নেচার' পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে তাদের এ গবেষণাপত্র।

গবেষক দলটির অন্যতম সদস্য আনা হিকম্যান জানাচ্ছেন, সমুদ্রের জলে থাকা শৈবাল কণা 'ফাইটোপ্লাংকটন' সবুজ। এরা ডাঙার সবুজ গাছের মতোই সূর্যের আলোকে ব্যবহার করে খাবার তৈরি করে। যেখানে এদের সংখ্যা কম, সেখানে সাগরের জল নীল। যেখানে বেশি, সেখানে সবুজাভ। জলবায়ু পরিবর্তনের বর্তমান ধারায় বদল আনতে না পারলে ২১০০ সাল নাগাদ এ গ্রহের তাপমাত্রা প্রায় ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেড়ে যাবে। উষ্ণতর জল পেয়ে সংখ্যায় তথা পরিমাণে (বায়োমাস) বিপুল বাড়বে ফাইটোপ্লাংকটনের। আর তাতেই ঢের বেশি সবুজাভ হয়ে উঠবে সাগরের নীল জল। শুধু তা-ই নয়, এদের জন্ম-মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে একেক মৌসুমে একেক রকম রঙ নেবে সমুদ্র। গত দু'দশকে যে তথ্য জোগাড় হয়েছে, তার ভিত্তিতেই রঙ বদলের বিষয়টি উঠে এসেছে। শৈবাল কণার ক্লোরোফিল সমুদ্রের প্রাণিকুলের খাবারের প্রাথমিক জোগানদার। এদের পরিমাণ ব্যাপকভাবে কমে গেলে সমুদ্রের খাদ্যচক্র ও কার্বনচক্রে বড়-সড় পরিবর্তন ঘটবে। অজানা পরিস্থিতি তৈরি হবে। সেই বদলটা মানুষ তথা পৃথিবীর জীবকুলের পক্ষে ভালো, না মন্দ, তা নিয়ে রায় দেওয়ার সময় অবশ্য আসেনি। এ পরিবর্তনটা রাতারাতি নয়; হচ্ছে ধীরে। তবে বদলটার দিকে বিজ্ঞানীদের নজরদারি জরুরি বলে মনে করছেন হিকম্যান ও তার সতীর্থরা।

হপ্রবাহ ডেস্ক