চিঠিপত্র

প্রকাশ: ১২ জুন ২০১৬      

লোডশেডিং নিয়ন্ত্রণ করুন
চলছে রমজান মাস । আর রমজান মাস এলেই আমাদের কাজের চাপ বেড়ে যায়। কেননা, এ মাসে সব জিনিসের চাহিদা বছরের অন্যান্য মাসের চেয়ে অনেকাংশে বেড়ে যায়। তাই পণ্যদ্রব্য উৎপাদন কার্যেও চাপ কম নয়; কিন্তু এ মাসে অনেক সময় লোডশেডিং উৎপাদন কার্যে বাধা হয়ে দাঁড়ায়, যা ব্যবসায়ীদের ক্ষতিরও কারণ বটে । তাই এ মাসে লোডশেডিং নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন। এজন্য সরকারি সহযোগিতা দরকার। তাছাড়া আমাদেরও সচেতন হওয়া প্রয়োজন। যাতে আমরা বিনা প্রয়োজনে টিভি, ফ্রিজ, ফ্যান ও র্টচলাইটের মতো বৈদ্যুতিক যন্ত্রাংশ চালিয়ে না রাখি। তাহলে হয়তো লোডশেডিং নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে। তাই আসুন, নিজেদের স্বার্থে নিজেরাই লোডশেডিং নিয়ন্ত্রণে সচেতন হই।
মো. মানিক উল্লাহ
মাজগ্রাম, বেতিল হাটখোলা, এনায়েতপুর, সিরাজগঞ্জ
ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত পুলিশ ফাঁড়ি চাই
একের পর এক হত্যাকাণ্ড চলছে দেশজুড়ে। গ্রামেও তা এখন ছড়িয়ে পড়েছে। সম্ভবত নিরাপত্তা ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর স্বল্পতার জন্যই
এটা বারবার ঘটছে বলে আমাদের মনে হয়। তাই এ মুহূর্তে যা যা করা প্রয়োজন তা হলো- ১. আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীতে আরও লোক নিয়োগ দেওয়া প্রয়োজন; ২. দেশের প্রতিটি ইউনিয়নে পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা; ৩. দেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলা, ইউনিয়নে ইউনিয়নে সিসি ক্যামেরা বসানোর ব্যবস্থাও নেওয়া যেতে পারে। আর এভাবেই গোটা দেশ নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দিতে পারলে হত্যাকাণ্ড, অপরাধ, সন্ত্রাস, ছিনতাই কমিয়ে আনা সম্ভব হবে।
লিয়াকত হোসেন খোকন
রূপনগর, ঢাকা