ওমর সানী। অভিনেতা। সম্প্রতি 'নোলক' নামে একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী। এ ছাড়া এ জুটির হাতে রয়েছে চারটি ছবির কাজ। চলচ্চিত্র ও সাম্প্রতিক প্রসঙ্গে কথা বললেন তিনি-

'নোলক' ছবির প্রেক্ষাপট কী নিয়ে?

সামাজিক গল্পনির্ভর মৌলিক ছবি 'নোলক'। ছবিতে আমি ও মৌসুমী অভিনয় করব আইনজীবীর চরিত্রে। ছবির গল্প শুনে মনে হয়েছে, এটি সমাজের দর্পণ হিসেবে কাজ করবে। গল্পে বাঙালিয়ানা যেমন আছে, তেমনি প্রতিটি চরিত্রের আলাদা বক্তব্য আছে। নতুনত্ব বলব না, তবে এ ছবিতে সানী, মৌসুমী, শাকিব ও ববিকে দর্শক অন্যরূপে দেখবেন। নির্মাতা রাশেদ সাহার সঙ্গে কথা বলে মনে হয়েছে, সবাইকে মুগ্ধ করার মতো একটি ছবি হবে এটি। ডিসেম্বর থেকে এর কাজ শুরু হওয়ার কথা। প্রযোজকের সঙ্গে কথা বলে জানলাম, ছবির ৩০ ভাগ কাজ হবে বাংলাদেশে, বাকি ৭০ ভাগ হবে হায়দরাবাদের রামোজি ফিল্ম সিটিতে।

নতুন চারটি ছবিতে আপনার অভিনয়ের কথা, এগুলোর কাজ কতদূর?

উত্তম আকাশের চারটি ছবিতে অভিনয় করছি। এর মধ্যে 'আমি নেতা হবো' ছবির কাজ শেষ। আগামীকাল থেকে 'চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া'র কাজ শুরু করব। এরপর 'নোলক' ছবির জন্য সময় দেওয়া আছে। বছরের শুরু থেকে 'মামলা হামলা ঝামেলা' ও 'কেউ কথা রাখে না' ছবির কাজ হবে। সব ছবিতেই আমার সহশিল্পী হিসেবে আছেন মৌসুমী।

অনেক দিন পর একটানা অভিনয় ব্যস্ততা, কেমন উপভোগ করছেন সময়টা?

নিয়মিত অভিনয় না করলেও চলচ্চিত্রই আমার সবকিছু। এ অঙ্গনের সঙ্গে ছায়ার মতো লেগে আছি। ব্যক্তিজীবন থেকে শুরু করে পারিবারিক জীবন, সবখানেই জড়িয়ে আছে চলচ্চিত্র। হয়তো অভিনয়ে নিয়মিত ছিলাম না; কিন্তু ভালো কাজ হলে সব সময় আছি। এখন যে ছবিগুলো করছি, সবগুলোতেই নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ আছে। তাই প্রতিটি ছবির জন্য আলাদা করে ভাবছি, সময় দিচ্ছি।

চলচ্চিত্রের চলমান সংকটের কতটুকু সমাধান হয়েছে...

এ অঙ্গনে সব সময় গণ্ডগোল ছিল, থাকবে। তবে আগের চেয়ে এখন পরিস্থিতি ভালো। একসঙ্গে কয়েকটি ভালো ছবি মুক্তি পাওয়ায় সবাই নতুন করে আশাবাদী হচ্ছেন। প্রযোজকরাও বিনিয়োগ করতে চাচ্ছেন। বাণিজ্যিক ধারার ছবিতেও এক ধরনের পরিবর্তন আসছে।

মন্তব্য করুন