আর অভিনয় নয়

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০১৯      

পড়শী। কণ্ঠশিল্পী। সম্প্রতি দর্শক-শ্রোতার মাঝে সাড়া জাগিয়েছে কণ্ঠশিল্পী ইমরানের সঙ্গে গাওয়া তার দ্বৈত গান 'আবদার'। পাশাপাশি শ্রোতার প্রশংসা কুড়িয়েছেন এ বছর প্রকাশিত 'লক্ষ্মীসোনা', 'আবাহন'সহ বেশ কিছু গানে কণ্ঠ দিয়ে। নতুন গান, এ সময়ের ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে-

ঘোষণা দেওয়ার দুই বছর পর ইমরানের সঙ্গে গাওয়া আপনার দ্বৈত গান 'আবদার' প্রকাশ পেল। এই গানের ভিডিও প্রকাশের জন্য এত সময় নেওয়ার কারণ কী?

শুরুতে 'আবদার' দ্বৈত অ্যালবাম হিসেবে প্রকাশ করতে চেয়েছিলাম আমরা। এই গানের গীতিকার রবিউল ইসলাম জীবন, সঙ্গীত পরিচালক ও কণ্ঠশিল্পী ইমরান মাহমুদুলও এটাই চেয়েছিলেন। কিন্তু পরে আমরা খেয়াল করে দেখলাম, কোনো প্রকাশক অ্যালবাম আলাদা করে প্রকাশ করছেন না। অ্যালবামের গানগুলো একক গান হিসেবে আলাদা ভিডিও করে প্রকাশ করছেন। এ জন্য শেষমেশ আমরাও 'আবদার' গানের ভিডিও নির্মাণ করে প্রকাশের পরিকল্পনা করি। এটা ঠিক যে, ঘোষণা দেওয়ার পরও এই মিউজিক ভিডিও প্রকাশে অনেক সময় লেগেছে। তার কারণ এই গানের সঙ্গে যারা নানাভাবে সম্পৃক্ত, তারা সবাই চেয়েছেন গান এবং ভিডিওটি সময়োপযোগী করে তোলার। ভিডিও নির্মাতা চন্দন রায় চৌধুরী সময় ও যত্ন নিয়ে কাজটি করেছেন।

আপনার কি মনে হয়, অনেক সময় নিয়ে গান ও মিউজিক ভিডিও নির্মাণের কারণেই 'আবদার' দর্শকের মাঝে এত সাড়া ফেলেছে?

ভালো কাজের জন্য কিছুটা সময় তো নিতেই হয়। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, সময় নিয়ে কাজ করলে সবই ভালো হবে। সবার আগে বুঝতে হবে দর্শক-শ্রোতার ভালো লাগার বিষয়টি। আমরা যারা শিল্পী, গীতিকার কিংবা সঙ্গীত পরিচালক, তাদের সবারই লক্ষ্য শ্রোতাদের মনোযোগ কেড়ে নেওয়া। তাই বলে সস্তা জনপ্রিয়তার জোয়ারে গা ভাসাতে চাই না। এ জন্য যে কোনো কাজ শুরুর আগে তার মান ও দর্শক-শ্রোতার ভালো লাগার বিষয়টি নিয়ে বেশি ভাবি। 'আবদার' গানের ক্ষেত্রেও সেটাই করেছি।

নতুন যে গানগুলোর জন্য স্টেজ শো কমিয়ে দিয়েছিলেন, সেগুলোর কাজ কি শেষ?

দুই মাস আগে পাঁচটি গানের কাজ শুরু করেছিলাম। তার মধ্যে শুধু 'আবদার' গানের ভিডিও প্রকাশ করতে পেরেছি। জুয়েল মোর্শেদ, নাভেদ পারভেজের সুর-সঙ্গীতে বেশ কিছু গান তৈরি করার পরিকল্পনা করেছিলাম, এখন সেগুলো একে একে শেষ করব। নতুন গানগুলোর জন্য একটু বাড়তি সময় নিচ্ছি। চেষ্টা করছি, আমার আগের গানগুলো থেকে এখনকার প্রতিটি আয়োজন যেন ভিন্ন ধরনের হয়।

শুনলাম, কণ্ঠশিল্পীর পাশাপাশি গীতিকার ও সুরকার হিসেবেও কাজ শুরু করেছেন?

ভালোলাগা থেকে অনেকে অনেক কিছু করে। মানুষ বলে আমিও দু-একটি গানের কথা লেখা বা সুর করার চেষ্টা তো করতেই পারি। তাই বলে তো নিজেকে গীতিকার বা সুরকার দাবি করতে পারি না। এর আগেও আমার ভাই স্বাক্ষরের সঙ্গে দু-একটি গানের সুর করার চেষ্টা করেছি, কিন্তু এবার একাই একটি গানের সুর করে ফেলেছি। সেইসঙ্গে এটাও উপলব্ধি করেছি, গান লেখা ও সুর করা অনেক কঠিন কাজ।

অভিনেত্রী পড়শীকে আবার কবে দেখা যাবে?

অনেক তো হলো, আর অভিনয় নয়। তবে এটুকু বলতে পারি নাটক, সিনেমায় না হলেও মিউজিক ভিডিওতে আমাকে বিভিন্ন চরিত্রে দেখতে পাবেন।