শিগগিরই সিনেমা নির্মাণ শুরু করব

প্রকাশ: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

অনন্ত হিরা। অভিনেতা, নাট্যকার ও নির্দেশক। বিটিভির 'জিন্দাবাহার' নাটকে অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত আছেন তিনি। এ ছাড়া মঞ্চে প্রদর্শিত হচ্ছে তার নির্দেশিত নাটক 'মেজর'। এ নাটক ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে-



যে ভাবনা থেকে প্রাঙ্গণেমোরের 'মেজর' নাটকটি মঞ্চে এনেছেন, তা নিয়ে জানতে চাই?

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উদযাপন নিয়ে যখন নানা রকম পরিকল্পনা চলছিল, তখন এক ধরনের দায় অনুভব করেছি নাটক করার। বাঙালি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর কাছে আমাদের যে ঋণ, তা কখনও শোধ হবে না। কিন্তু ঋণ শোধ না করতে পারলেও আমরা তাকে শ্রদ্ধা জানাতে পারি। সেই ভাবনা থেকেই 'মেজর' নাটকের পরিকল্পনা। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ এবং স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তির কথা মাথায় রেখেই আমাদের এই নাটক মঞ্চায়ন।

মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তির আয়োজন হিসেবে 'মেজর' কতটা প্রাসঙ্গিক?

আমরা মনে করি, যে দুটি উপলক্ষকে কেন্দ্র করে প্রাঙ্গণেমোরের এই নাটক, তা পুরোপুরি প্রাসঙ্গিক। বাঙালির এই স্মরণীয় মুহূর্তে কেমন আয়োজন হওয়া উচিত, তা নিয়ে অনেক ভেবেছি। অনেক খোঁজাখুঁজির পর পেয়েছি আবুল ফজলের একটি গল্প। যা এই সময়ের নাটকের জন্য নতুন কিছু হতে পাবে বলে মনে হয়েছে। সিনেমা, টিভি এমনকি মঞ্চে মেজরদের নিয়ে সেভাবে কোনো কাজ হয়নি। যেজন্য এই বিষয়টি নিয়ে লকডাউনের সময় কাজ শুরু করি। নাট্যরূপ দেওয়ার পর শুরু করি মঞ্চায়নের জন্য প্রস্তুতি।

'মেজর' মঞ্চায়নের আগ মুহূর্তে প্রাঙ্গণেমোরের বেশকিছু সদস্য দলত্যাগ করেছেন। নাটকে তার কোনো প্রভাব পড়েছে কি?

দু-চারজন সদস্যের দল ছেড়ে যাওয়া নাটকে কোনো প্রভাব ফেলতে পারেনি। প্রযোজনাও থেমে থাকেনি। নির্ধারিত দিনে নাটক মঞ্চে এনেছি আমরা। 'মেজর' ছাড়াও প্রাঙ্গণেমোরের অন্যান্য নাটক প্রদর্শিত হচ্ছে। যেজন্য কিছু সদস্যের দল ছেড়ে যাওয়া বড় কোনো ঘটনা বলেও কখনও মনে করছি না। তাছাড়া দল ছেড়ে যাওয়া, নতুন দল গড়া- এসব মঞ্চের দলগুলোর জন্য নতুন কোনো বিষয় নয়।

অনেক দিন পর টিভি নাটকে অভিনয় করছেন। মঞ্চের ব্যস্ততার কারণেই কি এতদিন টিভি নাটকে সময় দিতে পারেননি?

মঞ্চের ব্যস্ততায় টিভি নাটকে কাজ কম করা হয়, এটা সত্য, কিন্তু টিভি নাটকের অভিনয় থেকে কখনোই সরে যাইনি। দু-তিন মাস বিরতি দিয়ে হলেও টিভি নাটকে কাজ করছি। আমি মনে করি, ভালো কাজের জন্য মাধ্যম বড় কোনো বিষয় নয়।

এ সময়ে আর কী নিয়ে ব্যস্ত?

মঞ্চের বাইরে বিটিভির 'জিন্দাবাহার' নাটকে অভিনয় করছি। আঠারো শতকের ঐতিহাসিক ঘটনা নিয়ে নির্মিত এ নাটকে আমার চরিত্র ফকির মজনু শাহের। এর পাশাপাশি আরও কিছু টিভি নাটকে অভিনয় ও সিনেমা নির্মাণে প্রস্তুতি নিচ্ছি।

কবে নাগাদ সিনেমার কাজ শুরু হবে?

চিত্রনাট্য লিখে অনুদানের জন্য জমা দিয়েছি। সরকারি অনুদান না পেলেও শিগগিরই সিনেমা নির্মাণ শুরু করব।

সিনেমা নির্মাণেও কি নিজস্ব ভাবনা তুলে ধরার চেষ্টা থাকবে?

নাটকে ভালো গল্প ও অভিনয়নির্ভর কাজ প্রাধান্য দিয়েছি সব সময়। সিনেমার বিষয়েও একই ভাবনা নিয়ে কাজ করার ইচ্ছা। স্রোতের জোয়ারে গা না ভাসিয়ে একটি ভালো সিনেমা তৈরি করার জন্য দিনরাত কাজ করে যাচ্ছি।