অপু বিশ্বাস। তারকা অভিনেত্রী ও মডেল। বিরতি ভেঙে সম্প্রতি বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। লকডাউনের কারণে সিনেমার শুটিং বন্ধ থাকলেও এখন ব্যস্ত অন্যান্য আয়োজন নিয়ে। এ সময়ের ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে কথা হয় তার সঙ্গে-

কিছুদিন আগে আপনার 'প্রিয় কমলা' ছবি মুক্তি পেল। আপনার কি মনে হয় ছবিটি দর্শক প্রত্যাশা পূরণ করেছে?

এই ছবি ক'জন দর্শক দেখার সুযোগ পেয়েছেন, এটা আগে দেখতে হবে। হাতেগোনা একটি-দুটি হলে ছবি মুক্তি দিয়ে দর্শক চাহিদা পূরণ করা সম্ভব নয়। আবার এ কথাও ঠিক, করোনার এই দুঃসময়ে সিনেমা মুক্তি দেওয়া ছিল অকল্পনীয় বিষয়। তারপরও 'প্রিয় কমলা' টেলিভিশন দর্শকের জন্য প্রিমিয়ার করা হয়েছে। এতে অনেকে ছবি দেখার সুযোগ পেয়েছেন। যদি সারাদেশের সিনেমা হলগুলোয় ছবি মুক্তি দেওয়া হতো, তাহলে দর্শক প্রতিক্রিয়া ভালোভাবে বোঝা যেত। তবে আমি মনে করি, 'প্রিয় কমলা' ছবিটি দেখে দর্শক নিরাশ হবে না। কারণ এর গল্প ও চরিত্র দর্শক মনে ছাপ ফেলার মতো।

আপনার অন্য ছবিগুলো নিয়ে কেমন আশাবাদী?

এর মধ্যে 'ছায়াবৃক্ষ' নামের যে ছবির কাজ করেছি, সেটি আমার অভিনয় ক্যারিয়ারের ব্যতিক্রমী কাজ। এ ছবি নিয়ে আমি ভীষণ আশাবাদী। পাশাপাশি 'শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ-২' ছবিটি দর্শকের ভালো লাগবে বলেই আমার ধারণা। যারা নিখাদ বিনোদনের জন্য ছবি দেখেন, তাদের কথা ভেবেই 'শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ-২' ছবিটি নির্মাণ করেছেন দেবাশীষ বিশ্বাস।

হলে গিয়ে সিনেমা দেখার প্রবণতা কমে যাচ্ছে, এর কারণ কী বলে আপনার মনে হয়?

ভালো ছবির জন্যই দর্শক হলে যাবেন, এটাই সত্যি। টাকা খরচ করে হলে গিয়ে নষ্ট করার মতো সময় এখন কারও নেই। মানুষের হাতে হাতে মোবাইল, যেখানে বিনোদনের অভাব নেই। এমন একটা সময়ে যে কোনো ধরনের ছবি বানিয়ে দর্শক হলে টানা যাবে না। অনেকে প্রশ্ন করেন, অভিনয়ে বিরতি ভেঙেছেন; কিন্তু হাতে ছবির সংখ্যা এত কম কেন? এর উত্তর একটাই- ভালো গল্প পাচ্ছি না বলেই কাজ করা হয়ে উঠছে না। অভিনয়ে বিরতি ভাঙার পর এখন পর্যন্ত অনেক ছবির প্রস্তাব পেয়েছি। তার বেশিরভাগ ছবির গল্প পড়ে হতাশ হয়েছি। ক্যারিয়ারের এ পর্যায়ে এসে সংখ্যা বাড়ানোর জন্য কোনো কাজ করতে চাই না।

করোনার জন্য সিনেমার শুটিং বন্ধ, সময়টা কাটছে কীভাবে?

ছেলে জয়ের সঙ্গে সিনেমা দেখে, ছাদে ঘোরাঘুরি করে, গল্প শুনিয়ে কিছুটা সময় কাটছে। এ ছাড়া ঘরের কাজকর্ম করছি, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভক্ত ও পরিচিতদের নানা রকম পরামর্শ দিচ্ছি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এখন বেশ সক্রিয়। ফেসবুক লাইভে আজকাল বেশি দেখা যাচ্ছে- কারণ কী?

করোনার এ দুঃসময়ে মানুষের মনে সাহস জোগাতেই বারবার ফেসবুক লাইভে আসছি। একজন তারকা হিসেবে সমাজের প্রতি আমাদের কিছু দায়িত্ব আছে। সে দায়িত্বশীলতার জায়গা থেকে আমার অনুসারীদের নানা বিষয়ে পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি।


  অনিন্দ্য মামুন

মন্তব্য করুন