সমাজে প্রচলিত বিভিন্ন কুসংস্কারের কারণে মেয়েদের নানা বাধার মুখে পড়তে হয়। তেমনই কিছু কুসংস্কার নিয়ে এবার প্রশ্ন তুলেছেন বলিউড অভিনেত্রী তাপসী পান্নু। মেয়েদের ঋতুস্রাব চলাকালীন মন্দিরে প্রবেশ করা যাবে না, পূজা দেওয়া যাবে না, ফিসফিস করে এ বিষয়ে কথা বলতে হবে, এমনকি দোকান থেকে স্যানিটারি ন্যাপকিন কালো প্লাস্টিকে মুড়িয়ে ঘরে আনতে হবে। কিন্তু কেন? এসবই তাপসীর প্রশ্ন। তাই সামাজিক কুসংস্কার ও মেয়েদের স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতনতা গড়ে তুলতেই এবার এগিয়ে এসেছেন অভিনেত্রী তাপসী পান্নু। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, এবারই প্রথম নয়; কয়েক মাস আগে মুম্বাইয়ের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন তিনি। নারীদের মধ্যে স্বাস্থ্য সচেতনতা গড়ে তুলতে সংস্থার সদস্যদের সঙ্গে একযোগে কাজ করেছেন।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিওবার্তায় নারীর ঋতুস্রাব নিয়ে বেশ কিছু প্রশ্ন তুলে ধরেছেন এই বলিউড অভিনেত্রী।

তার মতে, যদি মেয়েদের শারীরিক বিষয়ে প্রচলিত ধারণা বা প্রথাগুলো না থাকত, তাহলে তারা স্বাভাবিক থাকতে পারতেন। তিনি বলেন, 'আমাদের সমাজ ব্যবস্থা পুরোনো ধ্যানধারণা থেকে কেন সরে আসছে না, বোঝা মুশকিল। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে শিক্ষিতের হার বাড়লেও অনেকের অন্ধবিশ্বাস এবং গোঁড়ামি এখনও কাটেনি। এ অবস্থা চলতে থাকলে আমরা কখনও আধুনিক জীবনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পারব না। নারীরা নানা কারণে পিছিয়ে থাকবে শুধু প্রচলিত রীতিনীতি মানার জন্য। তাই এখনই সময় জনসচেতনতা গড়ে তোলার। সে লক্ষ্যেই আমি কাজ করে যাচ্ছি।' এদিকে, সচেতনতামূলক কাজের পাশাপাশি অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তাপসী পান্নু। তার হাতে রয়েছে বেশ কিছু ভিন্ন ধাঁচের গল্পের ছবি।

মন্তব্য করুন