সিটি নির্বাচনে মাঠে জামায়াত টার্গেট সিলেট

প্রকাশ: ২৩ জুন ২০১৮      

রাজীব আহাম্মদ

আদালতের রায়ে নিবন্ধন হারালেও তিন সিটি করপোরেশনের আসন্ন নির্বাচনে মাঠে নেমেছে জামায়াতে ইসলামী। সিলেট, রাজশাহী ও বরিশালে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীর নাম ঘোষণা করলেও জামায়াতের লক্ষ্য সিলেট। দলটির নেতারা জানিয়েছেন, সিলেট পেলে অপর দুই সিটিতে বিএনপির সমর্থনে সরে দাঁড়াবেন জামায়াতের প্রার্থীরা।

জামায়াতের নায়েবে আমির মিয়া গোলাম পরওয়ার সমকালকে বলেছেন, সারাদেশের ১১টি সিটি করপোরেশনের ১০টিতে বিএনপির মেয়র প্রার্থীকে সমর্থন করেছে জামায়াত। গাজীপুর সিটি নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েও সরে দাঁড়িয়েছে বিএনপির সমর্থনে। কিন্তু সিলেটে ছাড় দেওয়া সম্ভব নয়। সিলেটে তাদের প্রার্থী মহানগর জামায়াতের আমির এহসানুল মাহবুব জোবায়ের শেষ পর্যন্ত ভোটে থাকবেন।

তবে জামায়াতের একটি সূত্র জানিয়েছে, তিন সিটিতে প্রার্থী দিয়ে জাতীয় নির্বাচনের আগে বিএনপির ওপর চাপ সৃষ্টি করছে জামায়াত। সিলেট-১ আসনে জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমানকে প্রার্থী করতে চায় জামায়াত। সেক্রেটারি জেনারেলের জন্য আসন নিশ্চিত করতেই সিলেটে মেয়র প্রার্থী দিয়েছে জামায়াত। জোট থেকে শফিকুর রহমানের মনোনয়ন নিশ্চিত হলে বরিশাল ও রাজশাহীর মতো সিলেটেও বিএনপিকে সমর্থন দেবে জামায়াত।

তবে এ সমীকরণকে গুজব বলে দাবি করেছেন মিয়া গোলাম পরওয়ার। তিনি বলেন, বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলের দ্বিতীয় বৃহত্তম দল জামায়াত। অন্তত একটি সিটিতে মেয়র পদে জোটের সমর্থন তাদের পাওয়া উচিত। সিলেটে তাদের অবস্থান জোটের অন্য দলগুলোর তুলনায় ভালো।

২০০১ সালের নির্বাচনে মৌলভীবাজার-২ আসনে জোটের মনোনয়ন পেয়েছিলেন ডা. শফিকুর রহমান। ১০ হাজার ভোট পেয়ে জামানত হারান। যুদ্ধাপরাধের মামলায় আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের পরে দলের সেক্রেটারি জেনারেল পদে এসেছেন ডা. শফিকুর রহমান। দলীয় আমির মকবুল আহমাদের ভোটে অংশ নেওয়ার সম্ভাবনা নেই। মৌলভীবাজারের আসনে শফিকুর রহমানের জয়ের সম্ভাবনা ক্ষীণ। তাই সেক্রেটারি জেনারেলকে সিলেট-১ আসনে প্রার্থী করতে চায় জামায়াত। আসন আদায়ে সিটি নির্বাচনকে ট্রাম্প কার্ড হিসেবে ব্যবহার করতে চাচ্ছে জামায়াত।

দলীয় সূত্র এমন তথ্য জানালেও জামায়াতের নায়েবে আমির মিয়া গোলাম পরওয়ার সমকালকে বলেন, সামনে জাতীয় নির্বাচন। তার আগে আসন নিয়ে অনেক কথাই হবে। তবে জামায়াতের ভাবনায় আপাতত সিটি নির্বাচন। দলের সেক্রেটারি জেনারেলের আসন নিয়ে এখনই ভাবা হচ্ছে না।

বরিশালে জামায়াতের প্রার্থী মহানগর আমির মোয়াজ্জেম হোসেইন হেলাল এবং রাজশাহীতে মহানগর সেক্রেটারি ছিদ্দিক হোসাইন। তবে দলটির নিবন্ধন বাতিল হওয়ায় স্বতন্ত্র পরিচয়ে প্রার্থী হবেন তারা। মোয়াজ্জেম হোসেইন হেলাল সমকালকে জানান, দলের নির্দেশে ভোটের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। কেন্দ্রীয়ভাবে বিএনপির সঙ্গে জোটবদ্ধ নির্বাচনের সিদ্ধান্ত হলে সরে দাঁড়াবেন। একই কথা জানান ছিদ্দিক হোসাইন। তবে এহসানুল মাহবুব জোবায়ের বললেন, তেমন কোনো সম্ভাবনাই নেই। ছয় মাস ধরে ভোটের প্রস্তুতি নিচ্ছে জামায়াত। বিএনপি-জামায়াতের জোট জাতীয় নির্বাচনের জন্য, সিলেট সিটি করপোরেশনের জন্য নয়। সিলেটে ছাড় নয়, বিএনপির সমর্থন চায় জামায়াত।

গত বুধবার বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, খুলনা ও গাজীপুরের মতো তিন সিটির আসন্ন নির্বাচনেও মেয়র পদে জোটের একক প্রার্থী দেওয়া হবে। বৈঠকে উপস্থিত জামায়াত প্রতিনিধিরাও এ সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছেন। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে গোলাম পরওয়ার সমকালকে বলেছেন, জোটের একক প্রার্থী বলতে শুধু বিএনপির প্রার্থীকে বোঝায় না। সিলেটে জামায়াতের প্রার্থীই হবেন জোটের প্রার্থী।

আগামী ২৮ জুন তিন সিটি নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। ৯ জুলাই পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহার করা যাবে। এহসানুল মাহবুব জোবায়ের সমকালকে বলেন, বিএনপির সঙ্গে সমঝোতার জন্য ৯ জুলাই পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকবেন তারা। আশা করছেন তার আগেই আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমঝোতা হবে। না হলে জামায়াত এককভাবে ভোটে অংশ নেবে।

সিলেট সিটি করপোরেশনের সর্বশেষ নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থীকে সমর্থন করেছিল জামায়াত। ২০১৩ সালের ৩০ জুনের ওই নির্বাচনে ২৭টি সাধারণ ওয়ার্ডের চারটিতে কাউন্সিলর পদে জয়ী হন জামায়াত সমর্থিতরা প্রার্থীরা। এহসানুল মাহবুব জোবায়ের বলেন, গতবার তিনি কারাগারে থাকায় ভোটে অংশ নিতে পারেননি। গত নির্বাচনে এককভাবে অংশ নিয়ে জামায়াত চারটি ওয়ার্ডে জয়ী হয়েছিল। বিএনপি জিতেছিল আটটি ওয়ার্ডে। আগেরবারের চেয়ে সিলেটে জামায়াতের বর্তমান অবস্থান আরও শক্তিশালী বলে দাবি করেছেন ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি এহসানুল মাহবুব জোবায়ের।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে প্রার্থী হয়েছিলেন গাজীপুর মহানগর জামায়াতের আমির এস এম সানাউল্লাহ। পরে বিএনপির প্রার্থীর সমর্থনে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেন তিনি। স্থগিত হয়ে যাওয়া ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র উপনির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হয়েছিলেন দলের নির্বাহী পরিষদ সদস্য মুহম্মদ সেলিম উদ্দীন।











প্রধানমন্ত্রীর পদ ছাড়লেন রাজাপাকসে

প্রধানমন্ত্রীর পদ ছাড়লেন রাজাপাকসে

শ্রীলঙ্কায় রাজনৈতিক সংকটের মধ্যে দায়িত্বে গ্রহণের সাত সপ্তাহের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ...

আ.লীগের ইশতেহার ঘোষণা মঙ্গলবার

আ.লীগের ইশতেহার ঘোষণা মঙ্গলবার

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে অাগমী মঙ্গলবার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা ...

যে গ্রামে দরজা নেই কোন ঘরের

যে গ্রামে দরজা নেই কোন ঘরের

ঘরে জিনিসপত্র, টাকা-পয়সা, গহনাগাটি নিরাপদ রাখতে মানুষ কত কিছুই না ...

আওয়ামী লীগে কোনো বিদ্রোহী প্রার্থী নেই: নানক

আওয়ামী লীগে কোনো বিদ্রোহী প্রার্থী নেই: নানক

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, আওয়ামী ...

হোর্হে সাম্পাওলি সান্তোসের কোচ

হোর্হে সাম্পাওলি সান্তোসের কোচ

রাশিয়ার কাজান এরিনা কাঁদিয়ে ছেড়েছে হোর্হে সাম্পাওলিকে। তার কোচিং ক্যারিয়ারের ...

ড. কামাল সাংবাদিকদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেছেন: আ’ লীগ

ড. কামাল সাংবাদিকদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেছেন: আ’ লীগ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, জাতীয় ...

মাঠে শেষ দিন পর্যন্ত থাকবো: ফখরুল

মাঠে শেষ দিন পর্যন্ত থাকবো: ফখরুল

একাদশ সংসদ নির্বাচনকে বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন উল্লেখ ...

'১৫-১৬ জনের বিশ্বকাপ দল তৈরি আছে'

'১৫-১৬ জনের বিশ্বকাপ দল তৈরি আছে'

কয়েক দিন ধরে বাতাসে একই গুঞ্জন। মাশরাফি কি মিরপুরে শেষ ...