বিপদগ্রস্ত কর্মীদের খোঁজ নিচ্ছে বিএনপি

প্রকাশ: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

চট্টগ্রাম ব্যুরো

তৃণমূলের বিএনপি নেতাকর্মীরা এখন কেমন আছেন- চট্টগ্রামে এসে এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে কেন্দ্রীয় বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল। দলটির ভাইস চেয়ারম্যান সাংবাদিক শওকত মাহমুদের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলটি গতকাল বুধবার থেকে চট্টগ্রামে অবস্থান করে সদ্যসমাপ্ত সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া দলীয় প্রার্থী ও মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলছে। তাদের জানার মূল বিষয় হচ্ছে- হামলা-মামলায় বিপর্যস্ত নেতাকর্মীরা সংশ্নিষ্ট এলাকার প্রার্থী ও দায়িত্বপ্রাপ্ত জ্যেষ্ঠ নেতাদের কাছ থেকে কাঙ্ক্ষিত সাহায্য-সহযোগিতা পাচ্ছেন কি-না। এ নিয়ে প্রতিবেদন ও তালিকা তৈরি করে দলের হাইকমান্ডের কাছে জমা দেবে প্রতিনিধি দলটি।

গতকাল দুপুর ১২টা থেকে নগরীর নাসিমন ভবনে নগর বিএনপি কার্যালয়ে চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী-চান্দগাঁও), চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালি-বাকলিয়া), চট্টগ্রাম-১০ (হালিশহর-পাহাড়তলী), চট্টগ্রাম-১১ (বন্দর-পতেঙ্গা) আসনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে পৃথকভাবে কথা বলেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। বিকেল ৪টায় একই স্থানে চট্টগ্রাম উত্তর জেলার আওতাধীন বিভিন্ন উপজেলা ও পৌরসভার দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন তারা। মতবিনিময় চলাকালে সব আসনের প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন না। তবে তাদের সঙ্গে অনানুষ্ঠানিকভাবে কথা বলছেন বলে জানিয়েছেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীরা তাদের দুঃখ-দুর্দশার কথা তুলে ধরেন। বেশিরভাগ নেতাকর্মী দলীয় প্রার্থী ও জ্যেষ্ঠ নেতাদের কাছ থেকে কমবেশি সহযোগিতা পাচ্ছেন জানালেও কেউ কেউ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

তাদের উদ্দেশে শওকত মাহমুদ বলেন, গায়েবিসহ বিভিন্ন মামলার আসামি হয়ে বিএনপির লাখ লাখ নেতাকর্মী আত্মগোপনে। অনেকে জেলে। এর পরও তারা আওয়ামী লীগের কাছে পরাজয় মেনে নিতে চান না। আওয়ামী লীগের মিডনাইট নির্বাচনের কারণে গণতন্ত্র মুখ থুবড়ে পড়েছে। বিএনপি মানুষের এই গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিতে কাজ করছে এবং একদিন বিএনপি ঘুরে দাঁড়াবেই।

আজ বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম দক্ষিণ ও তিন পার্বত্য জেলা বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে প্রতিনিধি দলটির। নগর বিএনপি কার্যালয়েই এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল বিকেলে নগর বিএনপি কার্যালয়ে শওকত মাহমুদ সমকালকে বলেন, 'বিপদগ্রস্ত নেতাকর্মী যারা মামলা-মোকদ্দমা ও নির্যাতন-নিপীড়নের শিকার তারা কেমন আছেন, কীভাবে তাদের সাহায্য-সহযোগিতা করা যায় এবং দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা, দলীয় প্রার্থী ও দল থেকে মনোনয়নবঞ্চিত নেতারা কর্মীদের জন্য কী করছেন তা জানাই আমাদের মূল লক্ষ্য। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় এই কাজটি করা হচ্ছে। দেশে ১০টি সাংগঠনিক কমিটি করা হয়েছে। চট্টগ্রাম বিভাগে আমরা কাজ করছি। দল গোছানোর কাজ করছে আরেকটি কমিটি।'

প্রতিনিধি দলের সদস্য বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মশিউর রহমান বিপ্লব জানিয়েছেন, বিপদগ্রস্ত নেতাকর্মী যাদের সহযোগিতা প্রয়োজন, তাদের একটি তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। দলের হাইকমান্ডের কাছে শিগগির এই তালিকা জমা দেওয়া হবে।

শওকত মাহমুদের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলে আরও রয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্মবিষয়ক সহসম্পাদক জন গোমেজ ও কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য তকদির হোসেন জসিম। কর্মসূচি সমন্বয় করছেন দলের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুবের রহমান শামীম ও সহসাংগঠনিক সম্পাদক মো. হারুনুর রশিদ।