খালেদা জিয়ার চিকিৎসা

আবেদন পেলে প্যারোলে মুক্তির চিন্তা করবে সরকার

জামালপুরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০১৯

জামালপুর প্রতিনিধি

দুর্নীতির মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্যারোলে মুক্তি পাওয়ার জন্য যথাযথ প্রক্রিয়ায় আবেদন করলে সরকার তা বিবেচনা করবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। গতকাল শনিবার দুপুরে জামালপুরে স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন তথ্য জানান। এর আগে মন্ত্রী দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চিকাজানি ইউনিয়নের খেলাবাগি এলাকায় বাহাদুরাবাদ ঘাট নৌ থানার নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করেন। যমুনা নদীর তীরে আড়াই কোটি টাকা ব্যয়ে এই ভবন নির্মাণ করা হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নিরাপত্তা ছাড়া উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ও ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারের লক্ষ্যে যা দরকার তা করে যাচ্ছে এই সরকার। এরই ধারাবাহিকতায় এই নৌ থানা নির্মিত হয়েছে। এতে নৌপথে যাত্রীরা নিরাপদে যাতায়াত করতে পারবেন।

পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে প্যারোলে মুক্তি পেতে হলে সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ দেখিয়ে আবেদন করতে হবে। এ ধরনের কোনো আবেদন এখনও আমাদের কাছে আসেনি। আবেদন পেলে মুক্তির বিষয়ে চিন্তা করবে সরকার।

সাতক্ষীরার শ্যামনগর থানার ওসির অনিয়মের পরিপ্রেক্ষিতে দেশের বিভিন্ন থানায় কর্মরত ১৩ হাজার পুলিশের কর্মকাণ্ড নিয়ে সম্প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। এ প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিরাট পুলিশ বাহিনীর কিছু সদস্য যদি অন্যায় করে থাকে; তাহলে আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ দেশে কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়- সেটা এ দেশের জনগণ বারবার প্রমাণ পেয়েছে বলেও দাবি করেন মন্ত্রী।

গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হেলিকপ্টারে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মাঠে অবতরণ করেন। নৌ থানা উদ্বোধনের পর তিনি জেলা পুলিশ আয়োজিত মাদক ও জঙ্গিবিরোধী সমাবেশে যোগ দেন। জামালপুরের পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে ওই সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন আসাদুজ্জামান খান কামাল। প্রধান বক্তা ছিলেন অতিরিক্ত আইজিপি (প্রশাসন ও অপারেশন) মোখলেসুর রহমান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন জেলার চার এমপি মির্জা আজম, আবুল কালাম আজাদ, ফরিদুল হক খান দুলাল ও মোজাফফ্‌র হোসেন। পিআইবির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সীমা রানী সরকারের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ চৌধুরী, দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ইস্তিয়াক হোসেন দিদার। সমাবেশ শেষে অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।