বিশ্বচিত্র

করোনা থেকে সুস্থ কোটির বেশি মানুষ

প্রকাশ: ৩১ জুলাই ২০২০     আপডেট: ৩১ জুলাই ২০২০

সমকাল ডেস্ক

বিশ্বজুড়ে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক কোটির বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। চীনের উহান থেকে গত সাত মাসে ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকলেও প্রথম দিককার চেয়ে এখন সুস্থতার হারও বাড়ছে। এখন পর্যন্ত কোনো ওষুধ বা টিকা তৈরি না হলেও সম্ভাব্য চিকিৎসা পদ্ধতির প্রয়োগ ও সংকটাপন্ন মুহূর্তে সেবার পরিসর বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রাথমিক ধাক্কা সামলে সুস্থ হয়ে উঠলেও আক্রান্তদের ফুসফুস, হৃদযন্ত্র ও কিনডিতে দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব পড়ার আশঙ্কাও রয়েছে। খবর বিবিসি, এএফপি ও দ্য গার্ডিয়ানের।

করোনাভাইরাস নিয়ে সর্বশেষ তথ্য দেওয়া আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যান সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক কোটি ৭২ লাখ ১৩ হাজার ২৭০। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছে এক কোটি সাত লাখ ২৬ হাজার ৫২৫ জন। মোট আক্রান্তের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ছয় লাখ ৭০ হাজার ৯০৭ জনের। মৃত্যু ও সুস্থতা বাদে বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৫৭ লাখ ৮৯ হাজার ৭৯৮। এ হিসাবে আক্রান্তদের মধ্যে প্রায় তিন ভাগের দুই ভাগ মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছে। সক্রিয় রোগীদের মধ্যে চিকিৎসাধীন থাকা ৫৭ লাখ ২৩ হাজার ৪১৩ জনের অবস্থা স্থিতিশীল। তবে ৬৬ হাজার ৩৮৫ জনের অবস্থা সংকটাপন্ন।

বিশ্বে সংক্রমণের শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৫ লাখ ৭০ হাজার ১০৩ এবং মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক লাখ ৫৩ হাজার ৮৭৭। দেশটিতে প্রায় প্রতি মিনিটে করোনায় আক্রান্ত একজনের মৃত্যু হচ্ছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে মোট আক্রান্ত ২৫ লাখ ৫৫ হাজার ৫৫৮ এবং মৃত্যু দাঁড়িয়েছে ৯০ হাজার ১৮৮। সংক্রমণে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ লাখ এক হাজার ৭০ ও মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৫ হাজার ১৭৪ জনে। চতুর্থ অবস্থানে থাকা রাশিয়ায় মোট আক্রান্ত ৮ লাখ ৩৪ হাজার ৫০০ ও মৃত্যু দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৮০২। পঞ্চম অবস্থানে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকায় মোট আক্রান্ত ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৩ ও মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সাত হাজার ৪৯৭।

রাশিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার তুলনায় আক্রান্ত কম হলেও যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, স্পেন, ইতালি, পেরু ও মেক্সিকোতে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি। করোনা আক্রান্ত হয়ে যুক্তরাজ্যে প্রাণ হারিয়েছে ৪৫ হাজার ৯৬১, মেক্সিকোতে ৪৫ হাজার ৩৬১, ইতালিতে ৩৫ হাজার ১৩৫, ফ্রান্সে ৩০ হাজার ২২৮, স্পেনে ২৮ হাজার ৪৪১ জন এবং ইরানে ১৬ হাজার ৫৬৯।