শোকের মাস শুরু কাল

প্রকাশ: ৩১ জুলাই ২০২০

সমকাল প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যেই আগামীকাল শনিবার শুরু হচ্ছে শোকের মাস আগস্ট।

বরাবরের মতো এবারের আগস্টেও মাসব্যাপী কর্মসূচি শুরু হচ্ছে কাল থেকে। তবে করোনার কারণে সব কর্মসূচিই পালিত হবে সীমিত পরিসরে এবং স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনেই। আগস্টের প্রথম প্রহর তথা আজ শুক্রবার রাত ১২টা ১ মিনিটে মোমবাতি প্রজ্বালন, আলোর মিছিল, শপথ গ্রহণ ও জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের মধ্য দিয়ে বিভিন্ন দল ও সংগঠনের কর্মসূচির সূচনা ঘটবে।

বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত শোকাবহ একটি মাস আগস্ট। এই আগস্টেই জাতির ইতিহাসের চরমতম শোকবিধুর ও কলঙ্কিত এক অধ্যায়ের সূচনা ঘটেছিল। ১৯৭৫ সালের এই আগস্টের মধ্যভাগে নৃশংসভাবে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছিল বাঙালির স্বাধীন রাষ্ট্রের মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। সেদিন এই মহানায়কের বুকের তাজা রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল শ্যামল বাংলার মাটি।

শোকাবহ আগস্টের প্রথম দিন থেকে মাসজুড়ে বাঙালি জাতি গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। ঘৃণা-ধিক্কার জানাবে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে নৃশংসভাবে হত্যাকারী একাত্তরের পরাজিত ঘৃণিত শত্রুদের।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে সপরিবারে জাতির পিতা হত্যার সঙ্গে সঙ্গে একাত্তরের পরাজিত শত্রুদের কূট ষড়যন্ত্র আর আক্রমণের শিকার হয়েছিল মুক্তিযুদ্ধের মহান আদর্শ এবং চেতনাও। ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ দিয়ে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের পথ রুদ্ধ করে আরেক কলঙ্কিত ইতিহাস রচনা করা হয়েছিল। ১৯৯৬ সালে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর কলঙ্কিত সেই অধ্যাদেশ বাতিল ও বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার শুরু হয়। দীর্ঘ বিচারপ্রক্রিয়া ও নানা কূটকৌশলের জাল ছিন্ন করে ২০১০ সালের ২৭ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের চূড়ান্ত রায় এবং পাঁচ ঘাতকের ফাঁসি কার্যকরের মাধ্যমে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করা হয়েছে। তবে পুরো জাতি এখনও প্রতীক্ষার প্রহর গুনছে, বঙ্গবন্ধুর বাকি ছয় পলাতক খুনির ফাঁসি কার্যকরের সেই মাহেন্দ্রক্ষণের।

এই আগস্টেই ঘটেছিল জাতির ইতিহাসের আরও একটি বিয়োগান্ত ঘটনা। ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে চালানো হয়েছিল ইতিহাসের ভয়াবহতম গ্রেনেড হামলা। বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের সমাবেশে চালানো এ গ্রেনেড হামলা থেকে আওয়ামী লীগ সভাপতি অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেও ঝরে পড়েছিল মহিলা আওয়ামী লীগ নেতা আইভি রহমানসহ ২৪টি তাজা প্রাণ।

শোকের মাসের কর্মসূচি :আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোর মাসব্যাপী কর্মসূচির সূচনা ঘটছে আগস্টের প্রথম প্রহরেই। স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে আজ শুক্রবার রাত ১২টা ১ মিনিটে ধানমন্ডি বঙ্গবন্ধু ভবন অভিমুখে আলোর মিছিল, শপথ গ্রহণ ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করবে। আগামীকাল শনিবার বিকেল ৩টায় বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে রক্তদান ও প্লাজমা সংগ্রহ কর্মসূচি এবং মাসব্যাপী সারাদেশে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি শুরু করবে কৃষক লীগ। একই দিন ঈদুল আজহার নামাজের পর ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্টের সব শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল করবে। আগস্ট মাসজুড়েই স্বাস্থ্যবিধি মেনে নানা কর্মসূচির আয়োজন করবে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলো।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এক বিবৃতিতে জাতির পিতার ৪৫তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি মেনে পালনের জন্য দল ও সহযোগী এবং সামাজিক-সাংস্কৃৃতিক সংগঠন ও সংস্থার সবস্তরের নেতাকর্মী-সমর্থক ও দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।