রেলে বিদেশি বিনিয়োগ নেবে ভারত

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০১৪      

শিল্প ও বাণিজ্য ডেস্ক

রেল খাতে প্রথমবারের মতো বিদেশি বিনিয়োগ গ্রহণ এবং বুলেট ট্রেন চালুর পরিকল্পনা নিয়ে ভারতে রেল বাজেট পেশ করেছে মোদি সরকার। বাজেটে রেলওয়ে যাত্রী সেবাকে আরও জনমুখী করতে বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহণের কথাও জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী সদানন্দ গৌড়া। লোকসভায় রেল বাজেট উপস্থাপনের মাধ্যমে নতুন সরকার বাজেট পেশের প্রক্রিয়া শুরু করল। আগামী বৃহস্পতিবার বাজেট উপস্থাপন করা হবে।
সাধারণত ভারতে ১ এপ্রিল থেকে নতুন অর্থবছর শুরু হয়। এর আগেই সরকার বাজেট পেশ করে। এবার সাধারণ নির্বাচনের কারণে নির্বাচিত সরকার অর্থবছর শুরুর তিন মাস পর বাজেট উপস্থাপন করছে।
নতুন বাজেটে স্থবির হয়ে পড়া অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে ব্যাপক অর্থনৈতিক সংস্কারের উদ্যোগ নেবে মোদি সরকার, এমনটাই ভাবছেন সাধারণ মানুষ ও বিশ্লেষকরা। নতুন রেল বাজেটে সেই পরিকল্পনার কিছু নমুনা দেখা গেছে।
প্রতিদিন ২ কোটি ৩০ লাখ চলাচলকারী বিদ্যমান রেলওয়ে নেটওয়ার্কের উন্নয়ন ও যাত্রীদের নিরাপত্তা, বিশেষ করে নারীদের যাতায়াতের জন্য বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণের প্রস্তাব করা হয়েছে রেল বাজেটে। পিছিয়ে পড়া এলাকায় রেল নেটওয়ার্ক গড়ে তোলা, পর্যটন কেন্দ্রগুলোকে নেটওয়ার্কের আওতায় আনা, এসএমএস সেবা চালুর কথা বলেছেন রেলমন্ত্রী।
বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর রাজ্য গুজরাটে ভারতের প্রথম বুলেট ট্রেন চালু করা হবে। সর্বোচ্চ ঘণ্টায় ৩২০ কিলোমিটার গতিবেগের ট্রেনটি চলবে মুম্বাই-আহমেদাবাদ রুটে। এএফপি।
জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১০০ কোটি রুপি। এ ছাড়া ৯ রুটে হাইস্পিড ট্রেন চালুর কথা বলেছেন রেলমন্ত্রী সদানন্দ গৌড়া।