আবার দরপতনের ধারা

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০১৪

সমকাল প্রতিবেদক

সূচকে তেমন কোনো পরিবর্তন দেখা না গেলেও গতকাল মঙ্গলবার দেশের দুই শেয়ারবাজারে লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারদর হ্রাস পেয়েছে। প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইতে পৌনে ৪৭ শতাংশ শেয়ারের দরহ্রাসের বিপরীতে বেড়েছে সোয়া ৩৬ শতাংশ। চট্টগ্রামের শেয়ারবাজারের ক্ষেত্রে দরহ্রাস ও বৃদ্ধিপ্রাপ্ত শেয়ারের হার ছিল যথাক্রমে সাড়ে ৫৯ শতাংশ ও সাড়ে ২৩ শতাংশ। এ নিয়ে দরপতন টানা ষষ্ঠ দিনে গড়াল। অধিকাংশ কোম্পানির টানা ষষ্ঠ দিনের দরপতনের বিপরীতে টানা পঞ্চম দিনে মাইডাস ফাইন্যান্স কোম্পানির শেয়ার সার্কিট ব্রেকার নির্ধারিত সর্বোচ্চ দরে (প্রায় ১০ শতাংশ বেশি) কেনাবেচা হয়েছে।
এদিন উভয় শেয়ারবাজারে ফার কেমিক্যাল কোম্পানির শেয়ার লেনদেন শুরু হয়েছে। প্রথম দিনে ডিএসইতে শেয়ারটি সর্বনিম্ন ৪৫ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫১ টাকা ৯০ পয়সা দরে কেনাবেচা হয়েছে। লেনদেন হয়েছে ২৭ কোটি ৬৮ লাখ টাকা মূল্যের শেয়ার, যা ছিল একক কোম্পানি হিসেবে গতকাল ডিএসইর সর্বোচ্চ শেয়ার লেনদেন। অন্যদিকে সিএসইতে ৪৪ টাকা ২০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ৫৪ টাকা ৩০ পয়সা দরে শেয়ার কেনাবেচা হয়।
খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং :খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং কোম্পানির তালিকাভুক্তির আবেদন গ্রহণ করেছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। গতকাল স্টক এক্সচেঞ্জটির পর্ষদ এ আবেদন অনুমোদন করে।
তালিকাভুক্তির সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ সুবিধাজনক সময়ে সেকেন্ডারি শেয়ারবাজারে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন শুরুর দিন নির্ধারণ করবে।
পরিকল্পনামন্ত্রীর সঙ্গে ডিএসইর বৈঠক :শেয়ারবাজার সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনার জন্য আজ বুধবার ডিএসইর একটি প্রতিনিধি দল পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে তার কার্যালয়ে বৈঠক করবে।