শ্রম আইনের প্রস্তাবিত সংশোধন নিয়ে আপত্তি

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত শ্রম আইনের সংশোধনী নিয়ে আপত্তি তুলেছে শ্রমিক সংগঠনগুলো। শ্রমিক নেতাদের অভিযোগ, প্রস্তাবিত সংশোধনীতে ট্রেড ইউনিয়ন গঠনে কারখানার শ্রমিকের স্বাক্ষর থাকার বাধ্যবাধকতা বড় কারখানার ক্ষেত্রে কিছু শিথিল হলেও ছোট কারখানার ক্ষেত্রে শর্তগুলো আগের মতোই আছে। ক্ষতিপূরণের পরিমাণও নির্ধারণ করা হয়েছে অত্যন্ত কম, মাত্র দুই লাখ টাকা। এ রকম আরও কিছু বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে শ্রমিকদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হবে। স্মারকলিপিতে তৈরি পোশাক কারখানায় ১৬ হাজার টাকার নূ্যনতম মজুরির দাবিও তুলে ধরা হবে।

গত ৩ সেপ্টেম্বর শ্রম আইনের সংশোধনী 'বাংলাদেশ শ্রম (সংশোধন) আইন, ২০১৮'-এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। এতে শ্রমিকদের স্বাধীন ট্রেড ইউনিয়ন চর্চা এবং ট্রেড ইউনিয়ন গঠন প্রক্রিয়া সহজ করার স্বার্থে কারখানার ২০ শতাংশ শ্রমিকের সম্মতিতেই ট্রেড ইউনিয়ন গঠন করার সুযোগ রয়েছে। ট্রেড ইউনিয়ন নিবন্ধনে হয়রানি বন্ধ করতে আবেদন পাওয়ার সর্বোচ্চ ৫৫ দিনের মধ্যেই নিবন্ধন দেওয়ার বাধ্যবাধকতাও রাখা হয়েছে।

ট্রেড ইউনিয়নের নিবন্ধন দেয় সরকারের শ্রম অধিদপ্তর। এ প্রতিষ্ঠানের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, পোশাক খাতে বর্তমানে ৬৬০টি ট্রেড ইউনিয়ন আছে। বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সভাপতি বাবুল আক্তার গতকাল সমকালকে বলেন, নিবন্ধিত এই ট্রেড ইউনিয়নগুলো বেশিরভাগ কারখানার মালিকরা নিজেরাই করেছেন। কিছু আছে মালিকদের অনুগত শ্রমিক নেতাদের। প্রকৃত ট্রেড ইউনিয়নের সংখ্যা ৫০টির বেশি নয়। তিনি বলেন, ট্রেড ইউনিয়ন নিবন্ধন নিয়ে শ্রম আইনের খসড়ায় শুভঙ্করের ফাঁকি রাখা হয়েছে। বড় কারখানার ক্ষেত্রে ২০ শতাংশ শ্রমিকের তথ্য থাকার কথা বলা হলেও ছোট কারখানার ক্ষেত্রে আগের মতোই ৩০ শতাংশের শর্ত রয়েছে। আগের সংশোধনীতে ট্রেড ইউনিয়ন নিবন্ধনের ক্ষেত্রে নিবন্ধকের সন্তুষ্ট হওয়ার যে শর্ত ছিল, এবারও তা রাখা হয়েছে। এসব বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে ইন্ডাস্ট্রিঅল বাংলাদেশ কাউন্সিল (আইবিসি) পোশাক খাতের গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের নিয়ে শনিবার বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে স্মারকলিপি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বর্তমান আইনে কোনো কারখানায় ট্রেড ইউনিয়ন গঠন করতে হলে কমপক্ষে ৩০ শতাংশ শ্রমিকের যাবতীয় তথ্য দিয়ে আবেদন করতে হয়। শ্রমিকদের অভিযোগ, এত বেশি শ্রমিকের সম্মতি জোগাড় করা কঠিন।
যে স্কুলে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নাচেন প্রধান শিক্ষকও

যে স্কুলে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নাচেন প্রধান শিক্ষকও

উত্তর কোরিয়ার এক প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক ইন্টারনেটে রীতিমতো তারকা ...

কমোডে মরদেহের মাংস, ট্রেন থেকে বন্ধু ছুড়েছে হাড়!

কমোডে মরদেহের মাংস, ট্রেন থেকে বন্ধু ছুড়েছে হাড়!

অর্থ সংক্রান্ত বিরোধে বন্ধুকে খুনের পর তার দেহ ২০০ টুকরা ...

ফোন হ্যাক, নায়িকার একান্ত ছবি সামাজিক মাধ্যমে

ফোন হ্যাক, নায়িকার একান্ত ছবি সামাজিক মাধ্যমে

নিজের একান্ত মুহূর্তের কিছু ছবি মোবাইল ফোনে তুলেছিলেন তামিল অভিনেত্রী ...

তোমার জন্য খোলা জানালা

তোমার জন্য খোলা জানালা

সত্তুরের দশক থেকে শুরু করে পরবর্তী চার দশক এ দেশের ...

বগুড়ায় সাইবার পুলিশ ইউনিটের উদ্বোধন

বগুড়ায় সাইবার পুলিশ ইউনিটের উদ্বোধন

সাইবার অপরাধ দমনে বগুড়ায় জেলা পুলিশের উদ্যোগে গঠিত সাইবার পুলিশ ...

গোদাগাড়ী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

গোদাগাড়ী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

রাজশাহীর গোদাগাড়ী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে জামাল (৪৫) নামের এক বাংলাদেশি ...

বিরক্ত  ন্যান্সি, বললেন বিদায়

বিরক্ত ন্যান্সি, বললেন বিদায়

বেশ বিরক্ত  বাংলা গানের জনপ্রিয় শিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি। কোন ...

লক্ষ্মীপুরে দুর্ঘটনায় শিক্ষক নিহত, সড়ক অবরোধ

লক্ষ্মীপুরে দুর্ঘটনায় শিক্ষক নিহত, সড়ক অবরোধ

লক্ষ্মীপুরে পিকআপ ভ্যানের চাপায় মোটর সাইকেল আরোহী মিজানুর রহমান রুবেল ...