রাজধানীতে শুরু হয়েছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা। প্রদর্শনীতে দেশের ব্যবহারকারীরা সর্বশেষ স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার যাচাই করে দেখা ও কেনার সুযোগ পাবেন। গতকাল বৃহস্পতিবার মেলার উদ্বোধন করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিন দিনের 'টেকশহরডটকম স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপো ২০১৯' শীর্ষক এ প্রদর্শনী চলবে শনিবার পর্যন্ত। প্রতিদিন মেলা সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।

মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোস্তাফা জব্বার বলেন, সরকারের সব ধরনের সেবাকে স্মার্টফোন কেন্দ্রিক করা হবে। এখনও অনেকেই বিভিন্ন সেবা ব্যবহারের জন্য কম্পিউটার বা ল্যাপটপ নির্ভর। কিন্তু সব সময় তা ব্যবহার করা সম্ভব হয় না। সরকারের এসব সেবাকে যে কোনো স্থান থেকে মানুষ যাতে সহজে ব্যবহার করতে পারেন, সেই লক্ষ্যে কাজ চলছে।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, এখন দেশে ২৫ শতাংশ মানুষ স্মার্টফোন ব্যবহার করার কথা বলা হলেও প্রকৃত প্রবৃদ্ধি অনেক বেশি। দেশে গ্রে মার্কেটে আসা হ্যান্ডসেট হিসেবে আসে না। গ্রে মার্কেটের এই দৌরাত্ম্য রুখতে হবে। এ জন্য চলতি মাসে মোবাইল ফোনের আইএমইআই নম্বর ডাটাবেজের কাজ শুরু হচ্ছে। খুব শিগগির এর নীতিমালা করা হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, গত বছরের আমদানি মোবাইল ফোনের ৭৭ শতাংশ স্মার্টফোন। সরকারও চাইছে সবার জন্য সরকারি সেবাকে সহজ করতে। তাই অ্যাপসও তৈরি করা হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন এ দেশে হুয়াওয়ের কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপের মার্কেটিং ডিরেক্টর ঈগল সং, স্যামসাং মোবাইলের জিএম বমিন কিম, ট্রানশানের সিইও রেজওয়ানুল হক, ভিভো কান্ট্রি প্রজেক্ট ম্যানেজার অ্যাঙ্গাস, আমরা কোম্পানিজ ও উই মোবাইলের চেয়ারম্যান সৈয়দ ফারুক আহমেদ ও স্মার্ট টেকনোলজিস বিডির পরিচালক সাকিব আরাফাত। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আয়োজক প্রতিষ্ঠান এক্সপো মেকারের কৌলশগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান।

মন্তব্য করুন