অঞ্চল নির্বিশেষে ভ্রমণ কোটা ১২ হাজার ডলার হচ্ছে

প্রকাশ: ২৬ জুলাই ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

আগামী বছর থেকে দেশের প্রাপ্তবয়স্ক যেকোনো নাগরিক সার্ক এবং অন্যান্য অঞ্চল নির্বিশেষে ভ্রমণ কোটায় বছরে ১২ হাজার ডলার ব্যয় করতে পারবেন। ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। বর্তমানেও একজন বছরে সর্বোচ্চ ১২ হাজার ডলার ব্যয় করতে পারেন। তবে তা দুই ভাগে করতে হয়। সার্কভুক্ত দেশ ও মিয়ানমার ভ্রমণে বছরে ৫ হাজার এবং সার্কের বাইরের দেশগুলোতে বছরে ৭ হাজার ডলার ব্যয় করা যায়। তবে সরকারি পর্যায়ে দাপ্তরিক কাজে এবং রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি যিনি এক্সপোর্টার রিটেনশন কোটা ব্যবহার করেন তাদের বেলায় এ সীমা প্রযোজ্য নয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক এক সার্কুলারে বিদেশ ভ্রমণে বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয়ের নতুন সীমা ব্যাংকগুলোকে জানিয়েছে। সার্কুলারে বলা হয়েছে, সার্কের ভেতরে বা বাইরে, যেকোনো দেশ ভ্রমণে প্রাপ্তবয়স্ক বাংলাদেশি নাগরিক বছরে ১২ হাজার ডলার নিয়ে যেতে পারবেন। তবে ১২ বছরের কম বয়সী ভ্রমণকারীদের ক্ষেত্রে এর পরিমাণ প্রাপ্তবয়স্কদের অর্ধেক বা ৬ হাজার ডলার হবে।

সংশ্নিষ্টরা জানান, মূলত ভারতে বেশি ব্যয় করার সুযোগ দিতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বর্তমান নিয়মে একজন নাগরিক ভারতে সর্বোচ্চ ৫ হাজার ডলার ব্যয় করতে পারেন। কিন্তু চিকিৎসাসহ বিভিন্ন কাজে বাংলাদেশের মানুষের ভারতসহ সার্ক দেশে যাতায়াত বেশি।