গৃহঋণের সীমা বেড়ে দুই কোটি টাকা

প্রকাশ: ২০ নভেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ব্যাংক থেকে ব্যক্তি পর্যায়ে গৃহঋণ নেওয়ার ক্ষমতা বাড়াল বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন থেকে একজন ব্যক্তি বাড়ি বা ফ্ল্যাট কিনতে ব্যাংক থেকে দুই কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন। এতদিন সর্বোচ্চ এক কোটি ২০ লাখ টাকা নেওয়া যেত। তবে ঋণ মার্জিন অনুপাত আগের মতোই ৭০ :৩০ নির্ধারিত থাকবে। ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের সংগঠন এবিবির দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ঋণের পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে। গতকাল কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ-সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করে ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠিয়েছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, আবাসন ও রিয়েল এস্টেট নির্মাণ সামগ্রীর দাম বৃদ্ধি, উচ্চ মধ্যবিত্তের সংখ্যা এবং মাথাপিছু আয় বৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে ঋণের পরিমাণ বাড়িয়ে দুই কোটি টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। অবিলম্বে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে। ভোক্তা ঋণ নীতিমালার আওতায় গৃহায়ন ঋণ বিতরণ করে ব্যাংকগুলো।

ঋণ অনুপাত ৭০ :৩০ নির্ধারণের মানে নিজের ৩০ টাকার বিপরীতে ব্যাংক থেকে ৭০ টাকা ঋণ নেওয়া যাবে। এ উপায়ে ব্যাংক একজন গ্রাহককে সর্বোচ্চ দিতে পারবে দুই কোটি টাকা। এর মানে কোনো ফ্ল্যাট বা বাড়ির মূল্য দুই কোটি ৮৬ লাখ টাকা হলে একজন ভোক্তা সর্বোচ্চ দুই কোটি টাকা ঋণ নিতে পারবেন। আর নিজের দিতে হবে ৮৬ লাখ টাকা।