বিডার ওয়ান স্টপে আরও ১১ সেবা

প্রকাশ: ১৫ জানুয়ারি ২০২০

মিরাজ শামস

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) বিনিয়োগ প্রক্রিয়া সহজ করতে এক দরজায় সেবা বা ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার (ওএসএসসি) চালু করেছে। প্রতিনিয়ত এ কেন্দ্রের সক্ষমতা বাড়াতে কাজ করছে সংস্থাটি। এ ধারাবাহিকতায় নতুন করে আরও ১১ সেবা যুক্ত করা হচ্ছে। আগে থেকে মিলছে ১৮ সেবা।

ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার থেকে নতুন ১১ সেবা দিতে আজ বুধবার সরকারি পাঁচ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সই করবে বিডা। এর ফলে সংস্থার ওএসএসসি পোর্টালের সঙ্গে যুক্ত হবে এসব প্রতিষ্ঠান। তাদের কাছ থেকে ১১ ধরনের সেবা পাওয়া যাবে।

এসব সংস্থার মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ থেকে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আসার ক্ষেত্রে সিকিউরিটি ক্লিয়ারেন্স সেবা দেওয়া হবে। আমদানি ও রপ্তানি প্রধান নিয়ন্ত্রকের দপ্তর থেকে মিলবে চার সেবা। এগুলো হলো- আমদানি নিবন্ধন সনদ (আইআরসি) ও রপ্তানি নিবন্ধন সনদ (ইআরসি) এবং উভয় সনদ নবায়নের সুবিধা। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকেও চার সেবা পেতে এমওইউ সই হবে। এগুলোর মধ্যে জমি ব্যবহারে অনাপত্তিপত্র, প্ল্যান অনুমোদন, বৃহৎ ও বিশেষ প্রকল্প অনুমোদন এবং কাজের অনুমোদন। ঢাকা বিদ্যুৎ বিতরণ কর্তৃপক্ষ ও বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সঙ্গে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ সেবাবিষয়ক এমওইউ হবে। এ ছাড়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বিভাগের সঙ্গে এমওইউ সই হওয়ার কথা রয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে এমওইউ সই হলে ফায়ার সার্ভিসবিষয়ক আবেদনের অনুমোদন ও নবায়ন এবং সুউচ্চ ভবন নির্মাণে অনাপত্তিপত্র সেবা অনলাইনে পাওয়া যাবে।

বিডা ওএসএস সেন্টারের মাধ্যমে ৩৫ সংস্থার ১৫০ ধরনের সেবা দেওয়ার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে কাজ করছে। এ ছাড়া পাঁচ সংস্থার ২২ ধরনের সেবা পাওয়া যাবে এ সেন্টারের মাধ্যমে। ইতোমধ্যে ছয় সংস্থার সঙ্গে অনলাইনে সেবা দেওয়ার বিষয়ে এমওইউ সই হয়েছে। পূর্বনির্ধারিত লক্ষ্য অনুযায়ী চলতি বছরের মধ্যে সব সেবা চালুর কথা রয়েছে। তবে এবার সব সেবা চালু সম্ভব না হলেও ২০২১ সালের মধ্যে সব সেবা ওএসএসসিতে যুক্ত করতে চায় সংস্থাটি।

ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টারের মাধ্যমে সব সেবা নিশ্চিত হলে উদ্যোক্তারা এক জায়গা থেকেই বিনিয়োগের প্রয়োজনীয় সব অনুমোদন পাবেন। এতে দেশে ব্যবসা শুরুর কার্যক্রম সহজ হবে। দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের সংশ্নিষ্ট অনুমোদন পেতে আর বিভিন্ন সরকারি সংস্থায় দৌড়াতে হবে না। বিডা কোন সেবা কত দিনে দেবে, তাও নির্দিষ্ট করে বিধিমালায় বলে দেওয়া হয়েছে। ফলে বিনিয়োগকারীদের অনুমোদনবিষয়ক অনিশ্চয়তার মধ্যে থাকতে হবে না।

ওয়ান স্টপ সার্ভিসের আওতায় এখন বিনিয়োগকারীদের ১৮ ধরনের সেবা দেওয়া হচ্ছে। এর মধ্যে ১৪ ধরনের সেবা বিডা নিজেই দিচ্ছে। এগুলো হলো- শিল্প প্রকল্প নিবন্ধন; ব্রাঞ্চ, লিয়াজোঁ ও প্রতিনিধি অফিস খোলার অনুমতি এবং এসব অফিস খোলার অনুমতি বৃদ্ধি, বাতিল ও সংশোধন; ভিসা সুপারিশপত্র; ভিসা অন অ্যারাইভাল; ভিসা অন অ্যারাইভাল সংশোধন; কাজের অনুমতি বা ওয়ার্ক পারমিট; কাজের অনুমতির মেয়াদ বৃদ্ধি; কাজের অনুমতি বাতিল; কাজের অনুমতি সংশোধন ও রেমিট্যান্স অনুমোদন।

এ ছাড়া যৌথ মূলধনি কোম্পানি নিবন্ধকের কার্যালয় (আরজেএসসি) থেকে নাম ক্লিয়ারেন্স ও কোম্পানি নিবন্ধন সেবা ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টারের মাধ্যমে নিতে পারবেন দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারী ও উদ্যোক্তারা। এনবিআর থেকে টিআইএন সার্টিফিকেট ও সোনালি ব্যাংক থেকে পেমেন্ট গেটওয়ে সেবাও দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া ঢাকার দুই এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সঙ্গে সংশ্নিষ্ট সেবা অনলাইনের মাধ্যমে দেওয়া হচ্ছে।