অন্তর্বর্তী লভ্যাংশের চিন্তা করছে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স

প্রকাশ: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

সমকাল প্রতিবেদক

শেয়ারবাজারে সদ্য তালিকাভুক্ত এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স এখন চলতি হিসাব বছরে শেয়ারহোল্ডারদের অন্তর্বর্তী লভ্যাংশ দেওয়ার চিন্তাভাবনা করছে। আগামী সেপ্টেম্বর প্রান্তিকের হিসাব শেষে তা দেওয়া হতে পারে।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সঙ্গে গতকাল মঙ্গলবার এক বৈঠকে এমন কথা জানিয়েছেন কোম্পানির শীর্ষ কর্মকর্তারা। তাদের দাবি, কমিশনের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনা সফল হয়েছে। বিনিয়োগকারীদের জন্য ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে কমিশনকে নিশ্চিত করেছেন।

বীমা খাতের কোম্পানিটি তালিকাভুক্তির তিন সপ্তাহের মধ্যে গত সোমবার পর্ষদ সভা করে ২০১৯ সালের জন্য কোনো লভ্যাংশ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এ খবর জানার পর বিএসইসি এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সের শীর্ষ কর্মকর্তাদের ডেকে পাঠায়। কোম্পানিটি মুনাফায় থাকার পরও গত হিসাব বছরের জন্য কোনো লভ্যাংশ ঘোষণা না করে বিনিয়োগকারীদের প্রতি অবিচার করেছে বলে মনে করে কমিশন। তলবের পর গতকাল কমিশনে যান কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক, কয়েকজন পরিচালকসহ কোম্পানি সচিব।

বৈঠক সূত্র জানায়, পর্ষদ সভার সিদ্ধান্ত এখন আর বদলানোর সুযোগ নেই। তাই তারা অন্তর্বর্তীকালীন লভ্যাংশ দিতে চায়। এ জন্য কোম্পানিকে একটি অডিট ফার্ম নিয়োগ দিতে বলেছে কমিশন। নিরীক্ষা প্রতিবেদনের পরই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে কোম্পানির পর্ষদ। সূত্র জানায়, জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর প্রান্তিক শেষে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বর শেষে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) করে ১ টাকা ৩১ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ১২ পয়সা। এরপরও কোনো লভ্যাংশ ঘোষণা করেনি কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ। এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার লেনদেন শুরু হয় গত ২৪ আগস্ট।