করোনার কারণে দেশে ফেরত আসা প্রবাসী কর্মীদের দক্ষ হিসেবে তৈরি করতে এবং তাদের উদ্যোক্তা মনোভাব বিকাশে যৌথভাবে কাজ করবে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশ এবং ব্র্যাক। কভিড-১৯ রেসপন্স উদ্যোগের অংশ হিসেবে তারা এই উদ্যোগ নিয়েছে। দুই বছর মেয়াদি এই প্রকল্পের নাম 'কভিড-১৯ রিকভারি :এন্টারপ্রেনিউরশিপ ট্রেইনিং অ্যান্ড গেইনফুল এমপ্লয়মেন্ট ফর রিটার্নি মাইগ্রেন্টস এফেক্টেড বাই কভিড-১৯ ইন বাংলাদেশ'।\হপ্রকল্পটির আওতায় করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত অভিবাসীদের জরুরি আগমন সহায়তা ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ ছাড়াও প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদের নতুন ব্যবসা শুরু করার জন্য অর্থ দেওয়া হবে। এর মাধ্যমে বিদেশফেরত কর্মীরা তাদের আর্থিক অবস্থার উন্নতি করতে পারবেন। ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী নারী ও তরুণদের এ সহায়তায় অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। অতিমারিতে ক্ষতিগ্রস্ত অভিবাসীদের ঘনত্বের অনুপাতের বিষয়টি মাথায় রেখে ঢাকা, চট্টগ্রাম এবং কুমিল্লা জেলা এই প্রকল্পের আওতাভুক্ত করা হয়েছে।\হপ্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে, চলমান অতিমারির ফলে গত এক বছরে প্রায় পাঁচ লাখ প্রবাসী দেশে ফিরে আসতে বাধ্য হয়েছেন। সম্প্রতি ব্র্যাকের এক জরিপ থেকে জানা যায়, বিদেশ থেকে আসা এই মানুষদের অর্ধেকই কোনো কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পারছেন না। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

মন্তব্য করুন