করোনাকালে ক্রেতা এবং রপ্তানিকারকদের মধ্যে যোগাযোগ বাড়াতে অনলাইনে একটি মেলার আয়োজন করছে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি)। আগামী ১৮ অক্টোবর সাত দিনের এ মেলা শুরু হবে। প্রধান রপ্তানিপণ্য তৈরি পোশাকসহ সম্ভাবনাময় ১৩টি পণ্যের বিদেশি ক্রেতাদের মেলায় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হয়েছে। আয়োজনের নাম দেওয়া হয়েছে 'সোর্সিং বাংলাদেশ, ভার্চুয়াল অ্যাডিশন'।\হবুধবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ইপিবি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মেলার বিস্তারিত তুলে ধরা হয়। বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি মেলার বিভিন্ন দিক, রপ্তানিবাণিজ্য, সম্ভাবনাময় পণ্য ও বাজার বিষয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, প্রচলিত পণ্য এবং বাজারের পাশাপাশি নতুন পণ্য এবং বাজারকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে এ আয়োজনে। ইউরোপ, আমেরিকার পাশাপাশি নতুন বাজার হিসেবে ল্যাটিন আমেরিকা, মধ্যপ্রাচ্য এবং আফ্রিকার দেশগুলোকে উদ্দেশ করে মেলায় ক্রেতা এবং দর্শক নির্বাচন করা হচ্ছে। এ আয়োজন সফল হলে আগামীতে আরও মেলা হবে। বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ, ইপিবির ভাইস চেয়ারম্যান এ এইচ আহসানসহ অন্যান্য কর্মকর্তা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।\হইপিবির ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, ওয়েব পোর্টালে ভার্চুয়াল বুথ থাকবে। এর মাধ্যমে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্যের ত্রিমাত্রিক ছবি প্রদর্শন করবে। একই সঙ্গে ডিজিটাল ব্রশিউর অর্থাৎ পণ্য এবং কোম্পানি-সংক্রান্ত সাধারণ তথ্যসংবলিত কার্ড প্রদর্শন করবে। ব্র্যান্ড এবং ক্রেতারা সরাসরি ভিডিও এবং অডিও সংলাপের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় আলোচনা করতে পারবেন।\হমেলায় অংশ নেওয়া খাতের মধ্যে রয়েছে তৈরি পোশাক, চামড়াজাত পণ্য, পাটপণ্য, ওষুধ, হোমটেক্সটাইল, কৃষিপ্রক্রিয়াজাত পণ্য, ফার্নিচার, সিরামিক, প্লাস্টিক, হালকা প্রকৌশল, ইলেকট্রিক ও ইলেকট্রনিক্স, তথ্যপ্রযুক্তি ও হস্তশিল্প। ২০০ রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নেবে বলে আশা করছে ইপিবি।

মন্তব্য করুন