স্বল্পমেয়াদি বিলের বিপরীতে বাজার থেকে টাকা তুলছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। একই সময়ে ডলার বিক্রি করে বাজার থেকে টাকা তোলা হচ্ছে। এতে আন্তঃব্যাংক কলমানিতে চাহিদা বেড়েছে ব্যাংকগুলোর। গত বৃহস্পতিবার কলমানিতে ১০ হাজার ৪৯৪ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। গত এক বছরের বেশি সময়ের যা সর্বোচ্চ। গত ১২ অক্টোবর কলমানিতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১০ হাজার ৪১৬ কোটি টাকার লেনদেন হয়।

কলমানিতে লেনদেন বৃদ্ধির পাশাপাশি সুদহারও বেড়েছে। বৃহস্পতিবার গড়ে ২ দশমিক ২৫ শতাংশ সুদে লেনদেন হয়। গত মাসেও গড়ে ২ শতাংশের কম সুদে লেনদেন হয়েছিল। এর আগে গত বছরের ২৯ এপ্রিল কলমানিতে ১১ হাজার ৭০ কোটি টাকার লেনদেন হয়।

ব্যাংকগুলোর চাহিদার বিপরীতে মাত্র ২ মাসে ১০১ কোটি ডলার বিক্রি করা হয়েছে। এর বিপরীতে বাজার থেকে ৮ হাজার ৬শ কোটি টাকার বেশি তোলা হয়েছে। আবার দীর্ঘদিন পর গত আগস্ট থেকে ৭, ১৪ ও ৩০ দিন মেয়াদি বিলের বিপরীতেও টাকা তোলা হচ্ছে। এতে অনেক ব্যাংকে নগদ টাকার সংকট তৈরি হয়েছে। ব্যাংকগুলো কলমানি থেকে ধারের পাশাপাশি বিভিন্ন ইন্সট্রুমেন্টের বিপরীতে আন্তঃব্যাংক রেপোর মাধ্যমেও ধার নিচ্ছে। এতদিন আমানতে অনেক কম সুদ দেওয়া ব্যাংকগুলো ধার নিচ্ছে বেশি। মেয়াদি আমানতে মূল্যস্ম্ফীতির নিচে সুদ না দিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনার পর থেকে ব্যাংকগুলো প্রচুর ধার করছে।

মন্তব্য করুন