শিল্প খাতে অবদানের স্বীকৃতি ও সৃজনশীলতাকে উৎসাহিত করতে ২৩ প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হচ্ছে 'বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প পুরস্কার ২০২০'। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে নির্বাচিত প্রতিষ্ঠানগুলোকে এ পুরস্কার দেওয়া হবে।

গতকাল বুধবার শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রথমবারের মতো এ পুরস্কার দিচ্ছে শিল্প মন্ত্রণালয়। এখন থেকে প্রতিবছরই এ পুরস্কার পাবেন উদ্যোক্তারা।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, এ পুরস্কার দেওয়ার লক্ষ্য হলো- বঙ্গবন্ধুর শিল্প পরিকল্পনার মাধ্যমে দেশে শিল্পায়নের যে সূচনা হয়েছিল, সেই অবদানকে স্মরণ করা এবং শিল্পায়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা প্রতিষ্ঠানকে স্বীকৃতি দেওয়া। পাশাপাশি পরিবেশবান্ধব শিল্প স্থাপন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং বিনিয়োগে উৎসাহ, পণ্য বহুমুখীকরণ, আমদানি বিকল্প পণ্য উৎপাদন করতে উৎসাহ দেওয়াও এ পুরস্কারের উদ্দেশ্য।\হসংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সাত ক্যাটাগরিতে পুরস্কারটি দেওয়া হচ্ছে। বৃহৎ শিল্প ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পাচ্ছে স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, জজ ভুঞা টেক্সটাইল মিলস এবং যৌথভাবে আদুরী অ্যাপারেলস ও ইউনিভার্সেল জিন্স। মাঝারি শিল্পে এ পুরস্কার পাচ্ছে অকো-টেক্স, ফরচুন সুজ এবং যৌথভাবে রহিম আফরোজ রিনিউএবল এনার্জি ও মাধবদী ডাইং ফিনিশিং মিলস। এ ছাড়া ক্ষুদ্র শিল্পে আমান প্লাস্টিক, এস আর হ্যান্ডিক্রাফটস, আলিম ইন্ডাস্ট্রিজ এবং অতিক্ষুদ্র শিল্পে কারুকলা, ট্রিম টেক্স বাংলাদেশ ও জনতা ইঞ্জিনিয়ারিং এ পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে।

সার্ভিস ইঞ্জিন, সুপারস্টার ইলেকট্রনিক্স ও মীর টেলিকম এ তিন প্রতিষ্ঠান হাইটেক শিল্পে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প পুরস্কার পাচ্ছে। হস্ত ও কারুশিল্পে পাচ্ছে ক্লাসিক হ্যান্ডমেইড প্রডাক্টস বিডি, আয়োজন এবং সোনারগাঁ নকশিকাঁথা মহিলা উন্নয়ন সংস্থা। আর কুটির শিল্পে পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে কুমিল্লা আর্টস ক্রাফটস, রং মেলা নারী কল্যাণ সংস্থা ও অগ্রজ।

মন্তব্য করুন