আর্থসামাজিক ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নতি করার পাশাপাশি উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে বাংলাদেশ। এটা এ দেশের বড় অর্জন। অথচ এ পর্যায়ে যে পরিমাণ বিনিয়োগের দরকার ছিল তা হচ্ছে না। বিদেশি বিনিয়োগে প্রতিবেশী ও প্রতিযোগী দেশগুলোর চেয়েও অনেক পিছিয়ে বাংলাদেশ। কেন কাঙ্ক্ষিত বিদেশি বিনিয়োগ আসছে না- তা নিয়ে বিস্তর পর্যালোচনা দরকার। কোথাও সমস্যা থাকলে দ্রুততম সময়ে নীতি সংস্কারের উদ্যোগ নিতে হবে। দূর করতে হবে অবকাঠামো সমস্যা।\হগতকাল সোমবার আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ সম্মেলন ২০২১-এর দ্বিতীয় ও সমাপনী দিনে এসব কথা বলেন দেশি ও বিদেশি ব্যবসায়ী এবং অংশগ্রহণকারী প্রতিনিধিরা। বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) এ সম্মেলনের আয়োজন করে।\হরাজধানীর র‌্যাডিসন ব্লু হোটেলে আয়োজিত সম্মেলনের শেষ দিনে বিভিন্ন সেশনের আলোচনায় বক্তারা আরও বলেন, বিপুল সম্ভাবনা থাকার পরও বাংলাদেশ কাঙ্ক্ষিত বিদেশি বিনিয়োগ আনতে পারছে না। এ ক্ষেত্রে প্রধান বাধা অবকাঠামোগত দুর্বলতা। মধ্যম আয়ের দেশের মতো এখনও পর্যাপ্ত অবকাঠামো হয়নি। রপ্তানিতে এখনও ৭৭ দিন লিড টাইম লাগছে।\হআলোচনায় অংশ নিয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, বিদেশিদের বিনিয়োগের সুরক্ষায় আইনি কাঠামো করা হয়েছে। দেশে বিদেশি বিনিয়োগের সুবিধা অনেক বাড়ানো হয়েছে।\হপরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ২০৪১ সালে উন্নত দেশ হওয়ার যে পরিকল্পনা করেছে বাংলাদেশ, সে লক্ষ্য অবশ্যই অর্জন হবে।\হনৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ সরকার এমন কোনো অপ্রত্যাশিত নীতি কার্যক্রম গ্রহণ করবে না, যা বিনিয়োগের বিপক্ষে যেতে পারে।\হবাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির বলেন, বাংলাদেশের স্থানীয় বাজারও এখন অনেক বড়। এখানে ব্যবসা করার সব সুবিধা পাবেন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা।

ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, বিদেশিরা ঢাকার যানজটের কথা বলে থাকেন। এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, মেট্রোরেল, পাতালরেলসহ যেসব বড় প্রকল্পের কাজ চলছে সেগুলো দ্রুত শেষ হলে এ সমস্যা থাকবে না।\হআইএফসির দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক সেবা উপদেষ্টা বিভাগের ব্যবস্থাপক সেলমা রাসাভেক বলেন, বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে অর্থনীতিতে বৈচিত্র্য আনা জরুরি।\হচট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এম শাহজাহান বলেন, আগামী বছরই মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্রবন্দর, বে-টার্মিনালসহ বড় অনেক প্রকল্পের কাজ দৃশ্যমান হবে, বন্দরের সক্ষমতা আরও বাড়বে।

অ্যামচেম সভাপতি সৈয়দ এরশাদ আহমেদ বলেন, বিনিয়োগ বাড়াতে বিমানবন্দর সেবায় আরও বেশি নজর দিতে হবে। সেবা আরও দ্রুত ও সহজ করতে আইসিটি খাতে আরও উন্নতি দরকার।

মধ্যম আয়ের দেশের জন্য যে ধরনের অবকাঠামো প্রয়োজন সেভাবে এখনও বাংলাদেশ পুরোপুরি প্রস্তুত নয় মন্তব্য করেন বিল্ডের সভাপতি আবুল কাশেম খান।

সৌদি আরবের অ্যাকোয়া পাওয়ারের গ্যাস টু পাওয়ার বিজনেস ডেভেলপমেন্টের নির্বাহী পরিচালক আয়াদ আল আমরি বলেন, তাদের প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশেও বিনিয়োগে আসছে। বিদেশি বিনিয়োগ টানতে আরও নীতি সহযোগিতা লাগবে।

এ ছাড়া অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিজিএমইএর সভাপতি ফারুক হাসান ও সাবেক সভাপতি আনোয়ার-উল-আলম চৌধুরী পারভেজ, বিএসইসির কমিশনার শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ, ব্যাংক নির্বাহীদের সংগঠন এবিবির সভাপতি আলী রেজা ইফতেখার প্রমুখ।

মন্তব্য করুন