সংখ্যালঘুদের পাশেদাঁড়ান :জামায়াত

প্রকাশ: ১১ জানুয়ারি ২০১৪      

নির্যাতন ও হামলার শিকার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়াতে দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমির মকবুল আহমাদ। শুক্রবার এক বিবৃতিতে তিনি এ নির্দেশনা দেন। সংখ্যালঘু নির্যাতনের জন্য সরকারি দলকে দায়ী করেন মকবুল আহমাদ।
বিবৃতিতে বলা হয়, 'আবহমানকাল ধরে মুসলমান-হিন্দু-বৌদ্ধসহ সব ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মানুষের শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের ঐতিহ্যে লালিত বাংলাদেশে চলছে সরকারি দলের হামলা, ভাংচুর, লুটপাট, অগি্নসংযোগ। নারী, শিশু, বৃদ্ধ কেউই এ হামলা থেকে রেহাই পাচ্ছে না। দেশের নাগরিকরা সাংবিধানিক ও মৌলিক মানবাধিকার থেকে বঞ্চিত। সরকারের নোংরা রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়। হাজার হাজার মানুষ আজ আশ্রয়হীন।'
ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, 'সংখ্যালঘু সম্প্রদায় ও বিরোধী দলের নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের ঘরবাড়ি, ধর্মীয়, সামাজিক ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা, লুটপাট, অগি্নসংযোগ ইত্যাদির ফলে দুর্বৃত্তরা যে বিভীষিকাময় পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে, তাতে হাজার হাজার মানুষ আজ সীমাহীন ক্ষয়ক্ষতির শিকার। এসব ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আমরা দেশি-বিদেশি সাহায্য সংস্থা, বিত্তবান নাগরিক এবং শান্তিকামী আপামর জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। '