আন্দোলনে যাচ্ছে খুলনাউন্নয়ন কমিটি

প্রকাশ: ১০ জুন ২০১৪      

খুলনা ব্যুরো

আগামী অর্থবছরের জন্য ঘোষিত জাতীয় বাজেটে খুলনার উন্নয়নে পর্যাপ্ত অর্থ বরাদ্দ না দেওয়ার প্রতিবাদে আন্দোলনে যাচ্ছে বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটি। আজ মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটির নেতারা কর্মসূচি ঘোষণা করবেন। এদিকে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বাজেট চূড়ান্ত করার আগে খুলনার উন্নয়নে অর্থ বরাদ্দ আরও বাড়ানোর দাবি জানিয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জনউদ্যোগ।
জাতীয় বাজেটে খুলনায় বিমানবন্দর নির্মাণ, মংলা বন্দরের উন্নয়ন, আধুনিক রেলস্টেশন নির্মাণ, আইটি ভিলেজ স্থাপন ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উন্নয়নে অর্থ বরাদ্দের দাবিতে বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম কমিটির সভা গত রোববার রাতে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় এ দাবিতে আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণার সিদ্ধান্ত হয়।
সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি শেখ আশরাফ-উজ-জামান। সভা পরিচালনা করেন মহাসচিব শেখ মোশাররফ হোসেন।
বক্তারা বলেন, এবারের জাতীয় বাজেটে খুলনার অনেক প্রকল্পে কোনো অর্থ বরাদ্দ রাখা হয়নি। গ্যাস সরবরাহ প্রকল্পসহ বেশ কয়েকটি প্রকল্পে যে অর্থ বরাদ্দ রাখা হয়েছে তা খুবই অপ্রতুল। সভায় বক্তব্য রাখেন এসএম দাউদ আলী, অ্যাডভোকেট এসএম মঞ্জুর-উল-আলম, শাহীন জামাল পন, অ্যাডভোকেট শেখ আবুল কাশেম, হারুন-অর-রশীদ হেলাল, শেখ হাফিজুর রহমান হাফিজ, মিজানুর রহমান বাবু, মনিরুজ্জামান রহিম প্রমুখ।
জনউদ্যোগের সংবাদ সম্মেলনে বিমানবন্দর নির্মাণ, মংলা বন্দরকে গতিশীল করা, নিউজপ্রিন্ট মিল ও দাদা ম্যাচ চালু করা, আইটি ভিলেজ ও টেক্সটাইল পল্লী স্থাপন, সুন্দরবন-কেন্দ্রিক পর্যটন শিল্প গড়ে তোলা, পাইপলাইনে গ্যাস সরবরাহ এবং খুলনা সিটি করপোরেশনের প্রকল্পগুলোয় প্রস্তাবিত বাজেট চূড়ান্ত করার আগে বরাদ্দ বৃদ্ধির দাবি জানানো হয়েছে।
গতকাল সোমবার কনসেন্স মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান জনউদ্যোগ খুলনার আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট কুদরত-ই-খুদা।