নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে উপনির্বাচন

মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রইলেন সেলিম-আকরামসহ ৪ জন

প্রকাশ: ১০ জুন ২০১৪      

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জ-৫ (শহর-বন্দর) আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে গতকাল সোমবার দু'জন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। তাদের একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন এবং অন্যজন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল সিদ্দিকী। নারায়ণগঞ্জ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তারিফুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। গত ২৯ মে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে ৮ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। ১ জুন বাছাইয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী রফিউর রাবি্বসহ দু'জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়। আর প্রত্যাহার করে নেন দু'জন। আজ মঙ্গলবার প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ হবে। ২৬ জুন ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।
নির্বাচনে এখন চার প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাদের মধ্যে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী সেলিম ওসমানের সঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও এ আসনের সাবেক সাংসদ এসএম আকরামের মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে ভোটারদের ধারণা। জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী সেলিম ওসমান এ আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য নাসিম ওসমানের মেজ ভাই। নির্বাচনের অন্য দুই প্রার্থী হলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের জেলা কমিটির সভাপতি শফিকুল ইসলাম দেলোয়ার ও স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট মামুন সিরাজুল মজিদ।
গত ২৯ এপ্রিল মধ্যরাতে ভারতের দেরাদুনে চিকিৎসা করাতে গিয়ে মারা যান এ আসনের সংসদ সদস্য নাসিম ওসমান।