ছিনতাই করতে গিয়ে আটক চার ভুয়া ডিবি

প্রকাশ: ১০ জুন ২০১৪      

সমকাল প্রতিবেদক

ব্যাংক থেকে আড়াই লাখ টাকা তুলে হেঁটে ফিরছিলেন একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা জানে আলম চৌধুরী প্লাবন ও কর্মচারী ইমাম মেহেদী ইমন। হঠাৎ ডিবি পরিচয়ে একদল ছিনতাইকারী তাদের আটক করে। দু'জনকে মারধরের পর টাকাসহ প্লাবনকে জোর করে গাড়িতে তুলে নিয়ে যাচ্ছিল তারা। এ সময় ইমনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছিনতাইকারীদের ধাওয়া করে। ছিনতাইকারীরা দ্রুত পালানোর চেষ্টা করলেও যানজটে আটকে পড়ে তাদের গাড়ি। উত্তেজিত জনতা চার ছিনতাইকারীকে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। গতকাল সোমবার দিন-দুপুরে রাজধানীর বনানী বাজার জামে মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে।
ধরাপড়া চার ছিনতাইকারী হলো_ মামুন, আবু বকর, মোস্তফা কামাল লিটন ও আল-আমিন। ছিনতাইচেষ্টার মামলায় পুলিশ তাদের গ্রেফতার দেখিয়েছে। তাদের সবার বয়স ২৫ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে।
ছিনতাইকারীদের কবলে পড়া ইমাম মেহেদী ইমন সাংবাদিকদের জানান, কসমো বিডি লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন তারা দু'জন। প্রতিষ্ঠানটির কর্মীদের বেতন দেওয়ার জন্য গতকাল বেলা ১১টার দিকে ব্র্যাক ব্যাংকের বনানী শাখা থেকে দুই লাখ ৬৩ হাজার টাকা তোলেন প্লাবন। এরপর তারা ওই টাকা বনানীর ন্যাশনাল ব্যাংকে জমা দেওয়ার জন্য যাচ্ছিলেন। এ সময় একটি মাইক্রোবাস থেকে নেমে কয়েক যুবক ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে তাদের আটক করে। দু'জনের বিরুদ্ধে 'অনেক অভিযোগ' আছে বলেও তারা দাবি করে। মাইক্রোবাসে না ওঠায় ওই যুবকরা প্লাবন ও ইমনকে মারধর করে এবং টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালায়। এতে ব্যর্থ হয়ে তারা প্লাবনকে জোর করে গাড়িতে তুলে নেয়। গাড়িটি চলতে শুরু করলে সাহায্যের জন্য চিৎকার করেন ইমন। তার চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন গাড়িটির পিছু ধাওয়া করে।