তোবার কারখানা বন্ধের নোটিশ অবৈধ

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৪      

সমকাল প্রতিবেদক

তোবা গ্রুপের পাঁচ পোশাক কারখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের নোটিশ অবৈধ বলে মত দিয়েছে শ্রম মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের কলকারখানা ও স্থাপনা পরিদর্শন বিভাগ তোবার কারখানার পরিস্থিতি এবং শ্রম আইনের সংশ্লিষ্ট ধারা যাচাই করে এই মত দিয়েছে। সরকারের এই মত গতকাল সোমবার চিঠির মাধ্যমে তোবার এমডি দেলোয়ার হোসেনকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এদিকে দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে শ্রম আদালতে আজ মামলা করার কথা তোবার শ্রমিকদের পক্ষে। তোবার বিষয়ে একটা সমঝোতায় আসার লক্ষ্যে শ্রম মন্ত্রণালয়ে আজ সরকার-মালিক-শ্রমিকদের ত্রিপক্ষীয় বৈঠক হওয়ার কথা।
শ্রম মন্ত্রণালয়ের কলকারখানা ও স্থাপনা পরিদর্শন বিভাগের প্রধান পরিদর্শক সৈয়দ আলী আহমেদ গতকাল সমকালকে জানিয়েছেন, তোবা গ্রুপের পাঁচ কারখানা বন্ধের নোটিশ অবৈধ। গত কয়েক দিন তোবার ঘটনাপ্রবাহ এবং শ্রম আইনের ১৩(১) ধারা যাচাই করেছেন তারা। তারা দেখেছেন, যে রকম পরিস্থিতি হলে আইনের এ ধারাটি প্রয়োগ করা যেতে পারে, তোবার ক্ষেত্রে পরিস্থিতি সে রকম হয়নি। বিষয়টি চিঠির মাধ্যমে তোবার এমডিকে জানানো হয়েছে। কারখানা বন্ধ করতে হলে নিয়ম অনুযায়ী শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধের কথা বলা হয়েছে চিঠিতে। এর আগে শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নুকে তাদের মতামত জানিয়েছেন। যোগাযোগ করা হলে তোবার এমডি দেলোয়ার গতকাল সন্ধ্যায় সমকালকে বলেন, তিনি এখনও চিঠি পাননি।
সমঝোতার চেষ্টা বিজিএমইএর :তোবার সংকট সমাধানে একটা সমঝোতায় আসার চেষ্টা করছে বিজিএমইএ। তোবা ইস্যু যাতে কোনোভাবেই পোশাক খাতে সমস্যা ডেকে আনতে না পারে, সে বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করছেন বিজিএমইএ নেতারা।
সংগঠনের একাধিক পরিচালক সমকালকে বলেন, দেলোয়ার দেড় হাজার শ্রমিককে এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ টাকা দিতে রাজি; কিন্তু শ্রমিক প্রতিনিধিরা এতে সন্তুষ্ট নয়। তারা অন্তত তিন মাসের বেতন চায়। আজ মঙ্গলবার এ বিষয়ে বৈঠক হওয়ার কথা।