ভাষাসৈনিক মতিনের লাইফ সাপোর্ট খুলে ফেলা হয়েছে

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৪      

সমকাল প্রতিবেদক

ভাষাসৈনিক আবদুল মতিনের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন এই ভাষাসৈনিক এখনও অচেতন অবস্থায় রয়েছেন। তবে গতকাল সোমবার তার লাইফ সাপোর্ট খুলে ফেলা হয়েছে। এখন তাকে শুধু অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়ে রাখা হয়েছে।
চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে আবদুল মতিনের স্ত্রী গুলবদন নেসা মনিকা সমকালকে বলেন, চিকিৎসকরা তাকে জানিয়েছেন, জ্ঞান ফেরা না পর্যন্ত কিছুই বলা যাবে না। বিভিন্ন রোগের উপসর্গ থাকার কারণে সব বিষয় বিবেচনা করে তারা চিকিৎসা দিচ্ছেন।
অধ্যাপক ডা. এম আফজাল হোসেন বলেন, তার ডায়াবেটিস, বাইপাস অপারেশন, হার্নিয়া ও মস্তিষ্কে ড্যামেজ রয়েছে। গত সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে ৮৮ বছর বয়সী এই ভাষাসৈনিককে প্রথমে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়।
সেখানে ইসিজি করার পর তার স্ট্রোক করার কথা জানিয়ে চিকিৎসকরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। পরে আবদুল মতিনকে রাজধানীর সিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার সিটি স্ক্যানসহ কয়েকটি পরীক্ষা করা হয়। পরে তাকে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। এর পর মঙ্গলবার সকালে তাকে বিএসএমএমইউতে স্থানান্তর করা হয়। বুধবার আবদুল মতিনের মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করে জমাট বাঁধা রক্ত সরিয়ে নেওয়া হয়। পরে তাকে বিএসএমএমইউর সি-ব্লকের ১০ তলায় আইসিইউতে রাখা হয়।