খুলনা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র শেখ তৈয়বুর রহমান স্মরণে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় নগরীর শহীদ হাদিস পার্কে নাগরিক শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তারা বলেন, শেখ তৈয়বুর রহমান ছিলেন সফল মেয়র, কূটনীতিক, রাজনৈতিক নেতা, মুক্তিযোদ্ধা ও একজন সৃজনশীল ব্যক্তিত্ব। তার কর্মকাণ্ড ছিল সাধারণ মানুষের উপকার করা। তিনি নানা উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন এবং এ জেলায় অনেক প্রতিষ্ঠান নিজ হাতে গড়ে গেছেন। একজন ব্যক্তির কাজে সাফল্য ও ব্যর্থতা থাকে। তবে শেখ তৈয়বুর রহমানের কর্মজীবনে সফলতাই ছিল বেশি। নাগরিক শোকসভা কমিটির আহ্বায়ক অধ্যক্ষ মো. মাজহারুল হান্নান সভায় সভাপতিত্ব করেন। পরিচালনা করেন কমিটির সদস্য সচিব শেখ আশরাফ উজ জামান।
সভায় তার হাতে গড়া খুলনা কলেজিয়েট গার্লস স্কুল ও একটি সড়ক তার নামে নামকরণের প্রস্তাব করা হয়। সভার শুরুতে তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
সভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক সংসদ সদস্য এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাই, ভারপ্রাপ্ত মেয়র মো. আনিসুর রহমান বিশ্বাস, জাতীয় পার্টির নেতা এসএম মঞ্জুরুল আলম, বিজেপি নেতা লতিফুর রহমান লাবু, প্যানেল মেয়র শেখ হাফিজুর রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা ও কাউন্সিলর শেখ আলী আকবর টিপু, সিপিবি নেতা মিজানুর রহমান বাবু, জাসদ নেতা আ ফ ম মহসিন, ন্যাপ নেতা দীপঙ্কর, উপজেলা চেয়ারম্যান স ম বাবর আলী, উপজেলা চেয়ারম্যান খান আলী মুনসুর, নাগরিক নেতা কাজী ওয়াহিদুজ্জামান, রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন গুহ, জেলা বারের সাবেক সভাপতি গাজী আবদুল বারী, খুলনা উন্নয়ন কমিটির মহাসচিব শেখ মোশাররফ হোসেন, আয়কর আইনজীবী সমিতির সভাপতি নজরুল ইসলাম হাওলাদার, শেখ হাফিজুর রহমান হাফিজ, শ্রমিক নেতা নিজাম উর রহমান লালু, শাহিন জামাল পন, মনিরুজ্জামান রহিম, বিএনপি নেতা অধ্যক্ষ তরিকুল ইসলাম, অধ্যক্ষ মুজিবর রহমান, তরিকুল ইসলাম জহির, শেখ আবুল কাশেম প্রমুখ।

মন্তব্য করুন