রূপনগরে স্ত্রীকে হত্যার পর পুলিশ কর্মকর্তার আত্মহত্যা

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০১৭      

সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর মিরপুরের রূপনগর আবাসিক এলাকার একটি বাসা থেকে পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুস সাত্তার ও তার স্ত্রী সীমা আক্তারের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার রাতে রূপনগর আবাসিক এলাকার ২২ নম্বর সড়কের ৩২ নম্বর বাসা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ ধারণা করছে, পারিবারিক কলহের জেরে ওই কর্মকর্তা পিস্তল দিয়ে নিজের স্ত্রীকে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যা করতে পারেন।
সাত্তার ঢাকা মহানগর পুলিশের বাড্ডা থানায় কর্মরত ছিলেন। তার স্ত্রী গৃহিণী ছিলেন। পুলিশের মিরপুর বিভাগের উপকমিশনার মাসুদ আহম্মেদ জানিয়েছেন, সাত্তার এবং তার স্ত্রীর মাথায় গুলির চিহ্ন পাওয়া গেছে। এ থেকে তারা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন, স্ত্রীকে খুন করে সাত্তার নিজে মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তবে তিনি তার নামে বরাদ্দ সরকারি আগ্নেয়াস্ত্র নাকি অন্য কোনো অস্ত্র ব্যবহার করেছেন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। পুলিশের ওই কর্মকর্তা আরও জানান, নিহত সাত্তারের স্বজনদের কাছ থেকে তথ্য নেওয়া হচ্ছে।
প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, সাত্তার-সীমা দম্পতির মধ্যে পারিবারিক কলহ ছিল। এ কারণেই ঘটনাটি ঘটতে পারে। কী নিয়ে পারিবারিক কলহ তা জানার চেষ্টা চলছে।
রূপনগর থানার ওসি সহিদ আলম জানান, ২২ নম্বর রোডের ৩২ নম্বর বাড়ির ষষ্ঠতলায় এসআই সাত্তার তার স্ত্রীকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন। বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে স্ত্রীকে হত্যা ও আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। অন্যদিকে বাড্ডা থানার ওসি আব্দুল জলিল জানান, গত ২৫ জুন এসআই সাত্তার বাড্ডা থানায় যোগ দেন। কি কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে তা তিনি নিশ্চিত নন।