গোলটেবিল আলোচনায় বক্তারা

সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য প্রয়োজন সরকারের সদিচ্ছা

প্রকাশ: ১৫ অক্টোবর ২০১৭

সমকাল প্রতিবেদক


রাজধানীতে এক গোলটেবিল আলোচনায় বিশিষ্টজন বলেছেন, একাদশ সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু করতে প্রয়োজন সরকারের সদিচ্ছা। তাদের কেউ কেউ সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য ভোটের সময় অন্তর্বর্তীকালীন সরকার এবং সেনা মোতায়েনের পক্ষে মত দেন। গতকাল শনিবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে 'দ্য ঢাকা ফোরাম' নামের সংগঠনের উদ্যোগে 'বাংলাদেশের নির্বাচন ও গণতন্ত্র' শীর্ষক এই গোলটেবিল আলোচনায় বক্তারা এসব কথা বলেন।
বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর সালেহউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এম হাফিজউদ্দিন খান, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন, সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার এটিএম শামসুল হুদা, সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজুমদার, রাষ্ট্রবিজ্ঞানী মীজানুর রহমান শেলী, সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আবুল হাসান চৌধুরী, দিলারা চৌধুরী, সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ, বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধে সাবেক রাষ্ট্রদূত এম সেরাজুল ইসলাম বলেন, সরকার যদি মনে করে, নির্বাচন অবাধ ও স্বচ্ছ করবে, তাহলে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে।
এম হাফিজউদ্দিন খান বলেন, সরকার না চাইলে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না। সরকার যাতে হস্তক্ষেপ করতে না পারে, এ জন্য অন্তর্বর্তীকালীন সরকার প্রয়োজন। নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। এটিএম শামসুল হুদা সব রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান।
আলী ইমাম মজুমদার বলেন, নির্বাচন কমিশন চাইলেই নির্বাচন সুষ্ঠু হবে- এমন দাবি করা যাবে না।
সালেহউদ্দিন আহমেদ বলেন, সরকার শক্তিশালী না হলে, সুশাসন না থাকলে, জবাবদিহি যদি না থাকে, তাহলে সবই অর্থহীন। যতই বলি, উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছি, উন্নয়ন হচ্ছে, তা কতটুকু টেকসই হবে তা নিয়ে অনেকের মধ্যে সন্দেহ আছে। মীজানুর রহমান শেলী বলেন, বাংলাদেশের যে সংকট, তা শুধু জনগণের নয়, এটি প্রধানত সরকারের সংকট।