উইকিপিডিয়ায় সাঁওতালি ভাষা

প্রকাশ: ০৯ আগস্ট ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

বাংলাদেশের তৃতীয় ভাষা হিসেবে উন্মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ায় এবার যুক্ত হলো সাঁওতালি ভাষা। গত সোমবার আদিবাসী দিবসের তিন দিন আগে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে সাঁওতালি ভাষার উইকিপিডিয়া (ংধঃ.রিশরঢ়বফরধ.ড়ৎম)। দীর্ঘদিন ধরে উইকিমিডিয়া ইনকিউবেটরে নানা পরীক্ষা শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে সাঁওতালি ভাষার উইকিপিডিয়া সবার জন্য উন্মুক্ত করা হয়। এরই মধ্যে নতুন ভাষার এ ওয়েবসাইটে ছয় শতাধিক নিবন্ধ যুক্ত হয়েছে।

নতুন এ ভাষার উইকিপিডিয়াসহ সব মিলিয়ে বর্তমানে ৩০১টি ভাষায় উইকিপিডিয়া চালু হলো। বাংলাদেশ থেকে এর আগে বাংলা ও বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি ভাষায় উইকিপিডিয়া চালু হয়েছে।

সর্বশেষ সরকারি তথ্য অনুযায়ী সাঁওতালি ভাষাভাষি মানুষের সংখ্যা ভারতে প্রায় ৬৫ লাখ, বাংলাদেশে দুই লাখ ২৫ হাজার ও নেপালে ৫০ হাজার। বেশিরভাগ সাঁওতালি ভারতের ঝাড়খণ্ড, আসাম, বিহার, উড়িষ্যা ও পশ্চিমবঙ্গ

রাজ্যে বাস করে।

সাঁওতালি ভাষার উইকিপিডিয়ায় সাঁওতালদের নিজস্ব অলচিকি লিপি ব্যবহার করা হয়েছে। সাঁওতালি ভাষার উইকিপিডিয়ার প্রশাসক মানিক সরেন বলেন, 'নিজেদের ভাষার উইকিপিডিয়ার কার্যক্রম শুরুর জন্য অনেকদিন ধরেই কাজ করে যাচ্ছি। অবশেষে যাত্রা শুরু হলো সাঁওতালি ভাষায় উন্মুক্ত বিশ্বকোষ। আদিবাসী দিবসের আগে এটি একটি বড় অর্জন।' তিনি সাঁওতালি ভাষার এ উইকিপিডিয়াকে সমৃদ্ধ করার আহ্বান জানান। মানিক সরেন মনে করেন, 'এর ফলে বর্ণমালা নিয়ে বিতর্কের কারণে বাংলাদেশে সাঁওতালি ভাষায় শিক্ষা কার্যক্রম চালুর ক্ষেত্রে যে সমস্যা তৈরি হয়েছে, তা কাটিয়ে ওঠা অনেক সহজ হবে।'

সাঁওতালি ভাষায় এ উইকিপিডিয়াটি চালু করতে বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালের সাঁওতালরা যৌথভাবে কাজ করেছেন। এ প্রসঙ্গে ভারতের সাঁওতালি উইকিপিডিয়া প্রশাসক অশ্বিনী রঞ্জন মুরমু বলেন, 'তিন দেশের সাঁওতালরা একসঙ্গে কাজ না করলে এটা সম্ভব হতো না। এর মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হলো, দেশ ভিন্ন হলেও ভাষার কোনো গণ্ডি নেই।' তিনি আরও জানান, সাঁওতালি উইকিপিডিয়া চালু উপলক্ষে শিগগিরই বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালের বিভিন্ন জায়গায় পৃথক পৃথক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হবে।