যাত্রীকল্যাণ সমিতির মহাসচিব রিমান্ড শেষে কারাগারে

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

যাত্রীকল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। একদিনের রিমান্ড শেষে মিরপুর থানা পুলিশ গতকাল শনিবার তাকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে। তিনি পেশাদার চাঁদাবাজ বলে আদালতে প্রতিবেদন দিয়ে পুনরায় তার পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। তবে আসামি ও বাদীপক্ষের শুনানি শেষে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর থানার এসআই বজলুর রহমান রিমান্ড আবেদনে দাবি করেছেন, মোজাম্মেলকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তদন্তে সহায়ক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। তিনি যাত্রীকল্যাণ সমিতির নামে বিভিন্ন পরিবহনের মালিক সমিতি ও পরিবহন শ্রমিক সমিতির লোকজনের কাছে চাঁদা চেয়েছেন এবং নিয়েছেন। তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তার সহযোগী চাঁদাবাজদের নাম-ঠিকানা জানা যাবে।

মোজাম্মেলের আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ূয়া রিমান্ড আবেদন বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। তাতে তিনি বলেন, কথিত বাদী (দুলাল) মোজাম্মেলকে চেনেন না বলে গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। পরিবহন শ্রমিকের দুই নেতা এই মামলা করিয়েছেন। এ সময় বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন আদালতে জমা দেন এই আইনজীবী। তিনি আদালতের কাছে প্রশ্ন করেন, বাদী যখন বলছেন তিনি মোজাম্মেলকে চেনেন না, তাহলে মামলা করলেন কে?